You are here
নীড়পাতা > সংবাদ > বাংলাদেশ > চিকিৎসাধীন তিন সাঁওতালের হাতকড়া খুলে দেওয়ার নির্দেশ

চিকিৎসাধীন তিন সাঁওতালের হাতকড়া খুলে দেওয়ার নির্দেশ

হাসপাতালে চিকিৎসাধীন তিন সাঁওতালের হাতকড়া ও কোমড় থেকে দড়ি খুলে দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছে হাইকোর্ট।  

এই নির্দেশ বাস্তবায়ন করে ঢাকার পুলিশ কমিশনার, রংপুরের ডিআইজি ও গাইবান্ধার পুলিশ সুপারকে ১৬ নভেম্বরের মধ্যে তা প্রতিবেদন আকারে হাই কোর্টে জমা দিতে বলা হয়েছে।

বিচারপতি ওবায়দুল হাসান ও বিচারপতি কৃষ্ণা দেবনাথের বেঞ্চ এক রিট আবেদনের শুনানি করে সোমবার এই আদেশ দেয়।

পাশাপাশি হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়ার সময় হাতকড়া পরিয়ে রাখা কেন অবৈধ ঘোষণা করা হবে না- তা জানতে চেয়ে রুল জারি করেছে আদালত।

দুই সপ্তাহের মধ্যে এর জবাব দিতে বলা হয়েছে স্বরাষ্ট্র সচিব, পুলিশ মহা পরিদর্শক, ঢাকার পুলিশ কমিশনার, রংপুরের ডিআইজি, গাইবান্ধার পুলিশ সুপারসহ পাঁচজনকে।

গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জে চিনিকলকর্মীদের সঙ্গে সংঘর্ষের সময় পুলিশের গুলিতে আহত তিন সাঁওতালকে কোমরে দড়ি বেঁধে ও হাতকড়া পরিয়ে হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়ার খবর গণমাধ্যমে প্রকাশ হওয়ার পর হাই কোর্টে এই রিট আবেদন করে ব্যারিস্টার জ্যোতির্ময় বড়ুয়া। তিনি নিজেই আদালতে শুনানি করেন। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল মোতাহার হোসেন সাজু।

গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জ উপজেলার সাহেবগঞ্জ এলাকার সাঁওতাল-অধ্যুষিত মাদারপুর ও জয়পুর গ্রামে গত ৬ নভেম্বর পুলিশ ও চিনিকলের শ্রমিক-কর্মচারীদের সঙ্গে সাঁওতালদের সংঘর্ষ হয়। রংপুর চিনিকলের জমিতে আখ কাটাকে কেন্দ্র করে এই সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এতে তিন সাঁওতাল নিহত হন, আহত হন অনেকে। গুলিবিদ্ধ হন চরণ সরেন, বিমল কিছকু ও দ্বিজেন টুডুকে আটক করে হাতকড়া পরিয়ে হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।

ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠীর উপর গুলিবর্ষণের এই ঘটনায় রাজধানী ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে প্রতিবাদ কর্মসূচি পালিত হচ্ছে।

সূত্র: বিডিনিউজ২৪

 

 

Similar Articles

Leave a Reply