‘লাঠিপেটা খাওয়ার জন্য আমরা জন্মাইনি’

নিউজটি শেয়ার করুন

ভারতের সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন (সিএএ) ও জাতীয় নাগরিকপঞ্জির (এনআরসি) প্রতিবাদে মুখ খুললেন বিখ্যাত লেখক ও সমাজকর্মী অরুন্ধতী রায়। জাতীয় জনসংখ্যা নিবন্ধন (এনপিআর) মূলত এনআরসি’র ডাটাবেজ হিসেবে কাজ করবে উল্লেখ করে তিনি বলেন, ভুল ঠিকানা ও তথ্য দিয়ে এনপিআরের বিরোধিতা করা উচিত।

বুধবার (২৫ ডিসেম্বর) দিল্লি ইউনিভার্সিটির বিক্ষোভকারী শিক্ষার্থীদের উদ্দেশে তিনি এ কথা বলেন।

অরুন্ধতী রায় বলেন, তারা আপনার বাড়িতে যাবে, আপনার নাম, ফোন নম্বর সংগ্রহ করবে; আধার কার্ড ও ড্রাইভিং লাইসেন্স দেখতে চাইবে। এসব তথ্য দিয়ে এনপিআর তৈরি করবে যা এনআরসি’র ডাটাবেজ হিসেবে কাজ করবে।

তিনি বলেন, পরিকল্পনা করে আমাদের এর বিরুদ্ধে লড়তে হবে। তারা যখন আপনার বাসায় যাবে এনপিআরের তথ্যের জন্য, আপনার নাম জিজ্ঞেস করবে, তখন তাদের ভুল নাম বলুন। ঠিকানা জানতে চাইলে ভুল ঠিকানা বলুন। চরম বিভ্রান্তি তৈরি হওয়া চাই। মনে রাখবেন, আমরা লাঠিপেটা ও গুলি খাওয়ার জন্য জন্মাইনি।

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর বিরুদ্ধে মিথ্যাচারের অভিযোগ করে অরুন্ধতী বলেন, মোদী দিল্লির র‍্যালিতে মিথ্যা কথা বলেছেন। তিনি বলেছেন, সরকার এনআরসি প্রক্রিয়া নিয়ে কিছুই বলেনি, আর দেশে কোনো বন্দিশিবিরও নেই। ধরা পড়বেন জেনেও মিথ্যা কথা বলেছেন মোদী। কারণ তিনি জানেন, মিডিয়া তার সঙ্গে আছে।

অরুন্ধতী বলেন, যারা সিএএ’র প্রতিবাদ করছে, তাদের নিজ নিজ রাজ্য থেকে ‘সঠিক অঙ্গীকার’ আদায় করতে হবে, যেন রাজ্যগুলো এসব বাস্তবায়ন না করে। দেশজুড়ে বিক্ষোভের কারণে সরকার এনপিআর আগে করতে চাইছে যেন পরবর্তীকালে এর মাধ্যমে এনআরসি ও সিএএ করা যায়।

পুলিশের বিরুদ্ধে অভিযোগ তুলে অরুন্ধতী বলেন, উত্তর প্রদেশে মুসলমানদের ওপর নির্যাতন-নিপীড়ন করছে পুলিশ। ঘরে ঘরে ঢুকে লুটপাট করছে পুলিশ।

সম্প্রতি সংশোধিত নাগরিকত্ব আইনের প্রতিবাদে উত্তাল হয়ে উঠেছে ভারত। বিক্ষোভে সহিংসতায় এ পর্যন্ত অন্তত ২৫ জন নিহত হয়েছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *