আন্তর্জাতিক | Women Words

আন্তর্জাতিক

আমরা জীবনের সবচেয়ে বড় সংকটে : স্পেনের প্রধানমন্ত্রী

আমরা জীবনের সবচেয়ে বড় সংকটে : স্পেনের প্রধানমন্ত্রী

দেশের জাতীয় সতর্কতার মেয়াদ আগামী ২৬ এপ্রিল পর্যন্ত বাড়ানোর ঘোষণা দিয়ে জাতির উদ্দেশে দেওয়া ভাষণে ইউরোপে করোনায় বিপর্যস্ত দেশ স্পেনের প্রধানমন্ত্রী পেদ্রো শানচেজ বলেছেন, ‘আমরা এখন আমাদের জীবনের সবচেয়ে বড় সংকটের মুখোমুখি।’ জাতীয় সতর্কতার কারণে দেশটিতে মানুষের চলাচলের ওপর বিধিনিষেধ আরোপ রয়েছে। সব ধরনের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান ও ব্যবসা প্রতিষ্ঠান বন্ধ। স্পেনের সরকার গত মঙ্গলবার এই জাতীয় সতর্কতার অনুমোদন চাওয়ার পর দেশটির পার্লামেন্ট এই অনুমোদন দিয়েছে। প্রধানমন্ত্রী জাতির উদ্দেশে দেওয়া ভাষণে বলেন, ‘আরও দুই সপ্তাহ নির্জন ঘরে একাকী থাকা কতটা কঠিন তা আমি বুঝতে পারছি। কিন্তু এই সংকটের মুখে এছাড়া আমাদের আর কিছু করার নেই। আরও কয়েক সপ্তাহ আমাদের এই নিষেধাজ্ঞার মধ্যে থাকতে হবে।’ তিনি আরও বলেন, ‘আমরা প্রত্যেক পরিবারকে ঘরে থাকার আহ্বান জানাচ্ছি। যারা তরুণ তারা তাদের পড়াশোনা চালিয়ে যাও। যারা বয়স্ক মানুষ আ
করোনার সঙ্গে যুদ্ধদিনের বর্ণনা দিলেন সুস্থ হওয়া তরুণী

করোনার সঙ্গে যুদ্ধদিনের বর্ণনা দিলেন সুস্থ হওয়া তরুণী

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে যুক্তরাজ্যে প্রায় ৩ হাজার মানুষ প্রাণ হারিয়েছেন। আক্রান্তদের অনেকে সুস্থ হচ্ছেন। তাদেরই একজন জেসি ক্লার্ক। কিডনির সমস্যা নিয়ে জেসিকে লড়তে হয়েছে করোনার সঙ্গে। এখন কিছুটা সুস্থ হলেও তার হাঁটতে কষ্ট হয়। হালকা কাশিও রয়েছে। করোনা জয়ী তরুণী জেসি বিবিসিকে বলেছেন নিজের অভিজ্ঞতার কথা। উইমেন ওয়ার্ডসের পাঠকদের জন্য তার হার না মানা গল্প তুলে ধরা হলো- যুক্তরাজ্যের শেফিল্ডের বাসিন্দা জেসি ক্লার্ক জানতেন যে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হলে তার জীবনের ঝুঁকি অনেক বেশি। কারণ, মারাত্মক কিডনি রোগে ভুগছেন তিনি। পাঁচ বছর আগে একটি কিডনি প্রতিস্থাপন করা হয় তার। তাই ২৬ বছর বয়সী জেসি যেদিন থেকে কাশতে শুরু করলেন, ভীষণ ভয় পেয়ে গেলেন তিনি। তার শ্বাসকষ্টও হচ্ছিল। কয়েক দিনের মধ্যে তার অবস্থা আরও খারাপ হয়, হাঁটতে পর্যন্ত পারছিলেন না। জেসি বলেন, তার পাঁজরে, পিঠে ও পেটেও প্রচণ্ড ব্যথা হচ্ছিল। মনে হ
করোনায় দক্ষিণ আফ্রিকায় প্রাণ গেল ভারতীয় বিজ্ঞানীর

করোনায় দক্ষিণ আফ্রিকায় প্রাণ গেল ভারতীয় বিজ্ঞানীর

জীবনের অধিকাংশ সময় জীবাণু নিয়ে গবেষণা করেই কাটিয়েছেন তিনি। আর সেই জীবাণুর ছোবলেই প্রাণ গেল ভারতীয় বংশোদ্ভূত ৬৪ বছর বয়সী বিজ্ঞানী গীতা রামজির। গতকাল বুধবার দক্ষিণ আফ্রিকার ডারবানে করোনাভাইরাসে তার মৃত্যু হয়েছে। ভারতীয় সংবাদমাধ্যমের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, প্রতিষেধক আবিষ্কার এবং এইচআইভি নিয়ে দীর্ঘ গবেষণা করছিলেন গীতা রামজির। দক্ষিণ আফ্রিকার মেডিকেল রিসার্চ কাউন্সিলের সঙ্গে তিনি যুক্ত ছিলেন। এক সপ্তাহ আগেই লন্ডন থেকে ফিরেছিলেন দক্ষিণ আফ্রিকায়। কোনো অসুখও ছিল না। এমনকি করোনাভাইরাসের কোনো উপসর্গও দেখা যায়নি। তারপরও হঠাৎ অসুস্থ হয়ে পড়েন তিনি। স্বাস্থ্য পরীক্ষার পর তার শরীরে করোনাভাইরাস ধরা পড়ে। তবে চিকিৎসার বিশেষ সুযোগ দেননি। আর তাই নিয়েই আক্ষেপ করছেন সাউথ আফ্রিকান মেডিকেল রিসার্চ কাউন্সিলের প্রেসিডেন্ট গ্লেনডা গ্রে। এক বিবৃতিতে তিনি জানিয়েছেন, প্রফেসর গীতা রামজি করোনাভাইরাস সংক্রান্ত জট
মালালা হোম কোয়ারেন্টিনে

মালালা হোম কোয়ারেন্টিনে

মহামারি করোনাভাইরাসের জন্য বিশ্বজুড়ে এখন অনেকেই হোম কোয়ারেন্টিনে আছেন। তবে বাড়িতে বসে কী করা যেতে পারে, সেটি নিয়ে ভাবনা চিন্তায় গৃহবন্দিরা। নোবেল জয়ী মালালার ক্ষেত্রেও তাই। হোম কোয়ারেন্টিনে একঘেয়ে হয়ে নিজেই নিজের চুল কাটলেন। আর সেই ছবি শেয়ার করলেন ইনস্টাগ্রামে। মালালা ইউসুফজাইয়ের ফ্রিঞ্জ করে কাটা চুলের ছবি এরই মধ্যে ভাইরাল। অনুরাগীরাও মিষ্টি বার্তাতে ভরিয়ে দিয়েছেন কমেন্ট বক্স। বাড়িতে নিজের চুল কাটার আগে অবশ্য তিনি তার ব্যক্তিগত চুল ও ত্বক বিশেষজ্ঞ জনাথন ভ্যান নেসের সঙ্গে শলাপরামর্শও করেছেন। কিন্তু জনাথন এইসময়ে মালালাকে একা নিজের চুল কাটতে একাধিকবার বারণ করলেও তিনি শোনেননি। খানিকটা শিশুসুলভ বায়না ধরেই নিজের লুক এক্সপেরিমেন্ট করে ফেলেছেন মালালা। তবে আখেরে তাতে খারাপ যে কিছুই হয়নি; তা মালালার পোস্টের নিচে তার ব্যক্তিগত চুল-ত্বক বিশেষজ্ঞ জনাথনের মন্তব্য দেখলেই বোঝা যায়। ক্যাপশনে মালালা জন
করোনায় এবার প্রাণ গেল স্প্যানিশ রাজকুমারীর

করোনায় এবার প্রাণ গেল স্প্যানিশ রাজকুমারীর

মহামারি করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে এবার মারা গেছেন রাজকুমারী মারিয়া টেরেসা। নোভেল করোনাভাইরাস সংক্রমণে এই প্রথম কোনও রাজপরিবারের সদস্যের প্রাণ গেলো। এতে রাজপরিবারে নেমে এসেছে শোকের ছায়া। গত শুক্রবার (২৭ মার্চ) তার মৃত্যু হয়। এসময় স্প্যানিশ রাজকুমারীর বয়স হয়েছিল ৮৬ বছর। প্রিন্স হাভিয়ার ও ম্যাডেলিন ডি বারবনের ছয় সন্তানের অন্যতম মারিয়া টেরেসা ১৯৩৩ সালের ২৮ জুলাই প্যারিসে জন্মগ্রহণ করেন। গতকাল শনিবার ফেসবুকে মারিয়া টেরেসোর মৃত্যুর কথা নিশ্চিত করেছেন তার ভাই প্রিন্স সিক্সতো এনরিকে ডি বারবন, ডিউক অব আরানজুয়েজ। তিনি জানান, মারিয়া টেরেসার শরীরে করোনা ভাইরাস ধরা পড়ার পর শুক্রবার প্যারিসে তার মৃত্যু হয়েছে। ওইদিনই মাদ্রিদে তার শেষকৃত্য সম্পন্ন হয়। এর আগে ব্রিটেনের প্রিন্স চার্লসও নোভেল করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। স্ত্রী ক্যামিলাকে নিয়ে স্কটল্যান্ডের বালমোরাল প্রাসাদে আইসোলেশনে রয়েছেন তিনি। রানী
ট্রুডোর স্ত্রী করোনা থেকে সুস্থ হয়েছেন

ট্রুডোর স্ত্রী করোনা থেকে সুস্থ হয়েছেন

কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডোর স্ত্রী সোফি গ্রেগোয়ার ট্রুডো মহামারি করোনাভাইরাস থেকে সুস্থ হয়ে উঠেছেন। এখন পুরোপুরি সুস্থ আছেন তিনি। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে দেওয়া বিবৃতিতে সোফি বলেন, এখন অনেক ভালো বোধ করছি আমি, চিকিৎসক আমাকে ছাড়পত্র দিয়েছেন। প্রসঙ্গত, গত ১২ মার্চ করোনা পজেটিভ ধরা পড়ে সোফির। তখন থেকেই সেল্ফ আইসোলেশনে ছিলেন ট্রুডো ও তার পরিবার। তবে তার সন্তানদের করোনার কোন লক্ষণ দেখা যায়নি। স্ত্রী সুস্থ হওয়ার পর ট্রুডো এক সংবাদ সম্মেলনে জানান, আমি হৃদয়ের অন্তরস্থল থেকে সবাইকে ধন্যবাদ জানাতে চাই। যারা এখন করোনায় আক্রান্ত আছেন সবার জন্য রইল আমার দোয়া। সেই সাথে সবাইকে বাড়ি থাকার নির্দেশ দিয়েছেন ট্রুডো এবং তিনিও আগের মত বাড়ি থেকে সব কাজ করবেন বলে জানিয়েছেন। এ পর্যন্ত কানাডায় করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ৫ হাজার ৬১৬ জন মানুষ। মারা গেছে ৬১ জন। সেই সাথে সুস্থ হয়ে উঠেছেন ৪৪৫ জন মানুষ।
করোনার কিট বানালেন সন্তানও জন্ম দিলেন

করোনার কিট বানালেন সন্তানও জন্ম দিলেন

পৃথিবীর অন্যতম জনবহুল দেশ ভারতে করোনাভাইরাস পরীক্ষার কিটের স্বল্পতা নিয়ে সমালোচনার মুখে দেশটিকে সফলতা দেখালেন এক নারী। প্রথমবারের মতো সম্পূর্ণ ভারতে তৈরি করা তার কিটে শতভাগ নির্ভুল ফল পাওয়া গেছে। এই সাফল্য নারী বিজ্ঞানীর হাত ধরে এসেছে তিনি মিনাল দাখেভে ভোঁসলে। মহারাষ্ট্রের পুনের মাইল্যাব ডিসকোভারির গবেষণা ও উন্নয়ন প্রধান হিসেবে কর্মরত মিনাল একজন ভাইরোলজিস্ট, ভাইরাস নিয়ে কাজ তাঁর। প্রথম ভারতীয় কোনো প্রতিষ্ঠান হিসেবে মাইল্যাব করোনাভাইরাস পরীক্ষার জন্য কিট বানিয়ে বাজারজাত করার অনুমতি পেয়েছে। গত বৃহস্পতিবার তাদের কিট বাজারে পৌঁছে গেছে। প্রথম চালানে প্রতিষ্ঠানটি পুনে, মুম্বাই, দিল্লি, গোয়া ও বেঙ্গালুরুতে ১৫০টি কিট পাঠিয়েছে। মাইল্যাবের চিকিৎসাবিষয়ক পরিচালক গৌতম ওংকারে গতকাল শুক্রবার বিবিসিকে বলেন, তাঁদের প্রতিষ্ঠান এইচআইভি, হেপাটাইটিস বি ও সি এবং অন্যান্য অসুখের পরীক্ষার জন্য কিট বানিয়ে থা
প্রথম নারী প্রধানমন্ত্রী পেতে যাচ্ছে মালয়েশিয়া?

প্রথম নারী প্রধানমন্ত্রী পেতে যাচ্ছে মালয়েশিয়া?

মালেশিয়ার প্রধানমন্ত্রীর পদ থেকে মাহাথির মোহাম্মদের পদত্যাগের পর তার স্থলাভিষিক্ত হতে যাচ্ছেন দেশটির বর্তমান উপপ্রধানমন্ত্রী দাতুক সেরি ডা. ওয়ান আজিজাহ ওয়ান ইসমাইল। প্রধানমন্ত্রী হিসেবে নিয়োগ পেলে তিনিই হবেন মালয়েশিয়ার ইতিহাসে প্রথম নারী প্রধানমন্ত্রী। ওয়ান আজিজাহ মাহাথিরেরই রাজনৈতিক জোটসঙ্গী আনোয়ার ইব্রাহীমের স্ত্রী। একটি সূত্রের বরাত দিয়ে তার পরবর্তী প্রধানমন্ত্রী হওয়ার খবর দিয়েছে মালয়েশিয়ান গণমাধ্যম মালয় মেইল। সূত্রটি বলছে, ক্ষমতাসীন জোট পাকাতান হারাপন থেকে ড. মাহাথিরের দল পিপিবিএম পার্টির সরে যাওয়ার পর তিনি অন্তবর্তীকালীন প্রধানমন্ত্রী হিসেবে ড. ওয়ান আজিজাহকে তার স্থলাভিষিক্ত করেন। এ বিষয়ে জানতে চাওয়া হলে পিকেআর এর সভাপতি আনোয়ার ইব্রাহিমের একজন ঘনিষ্ট ব্যক্তি মালয় মেইলকে বলেন, "ওয়ান আজিজাহই অন্তবর্তীকালীন প্রধানমন্ত্রী"। মালয়েশিয়ায় নতুন জোট সরকার গড়ার আলোচনার মধ্যেই সোমবার হঠাৎ কর
প্রধানমন্ত্রীর প্রশংসা করে অ্যাঞ্জেলিনা জোলির চিঠি

প্রধানমন্ত্রীর প্রশংসা করে অ্যাঞ্জেলিনা জোলির চিঠি

হামলার মুখে প্রাণ বাঁচাতে মিয়ানমার থেকে পালিয়ে আসা রোহিঙ্গাদের আশ্রয় দেওয়ায় বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সরকারের ভূয়সী প্রশংসা করেছেন মার্কিন অভিনেত্রী, চলচ্চিত্র নির্মাতা অ্যাঞ্জেলিনা জোলি। জাতিসংঘের শরণার্থী বিষয়ক সংস্থা ইউএনএইচসিআর এর বিশেষদূত জোলি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে পাঠানো এক চিঠিতে এমন প্রশংসা করেন। চিঠিতে তিনি বলেন, ‘ইউএনএইচসিআর মিয়ানমার থেকে আশ্রয় নেওয়া রোহিঙ্গাদের স্থায়ী প্রত্যাবাসনের উপযুক্ত পরিবেশ সৃষ্টিতে চেষ্টা অব্যাহত রাখবে।’ জোলি আশাবাদ প্রকাশ করে বলেন, ‘২০২০ সালের মার্চ মাসে চালু হতে যাওয়া রোহিঙ্গাদের মানবিক সংকট মোকাবিলার উদ্যোগ ও পরিকল্পনায় বাংলাদেশের সুদৃঢ় অবস্থান থাকবে।’ রোহিঙ্গাদের মানবিক সহায়তার ব্যাপারে নিজের সমর্থন অব্যাহত রাখার প্রতিশ্রুতি দিয়ে বিখ্যাত এ অভিনেত্রী বলেন, ‘বাংলাদেশের জনগণের এমন সমর্থনের জন্য তাদের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানাই।’ গত ফেব্রুয়া
ব্রিটেনে নতুন অভিবাসন নীতি

ব্রিটেনে নতুন অভিবাসন নীতি

সকলের জন্য আর দরজা খোলা রাখছে না ব্রিটেন। শুধুমাত্র ‌‘দক্ষ ও সেরা’দেরই ভিসা দেবে বরিস জনসনের দেশ।আগামী বছর থেকে ব্রিটেনে পয়েন্টভিত্তিক কাজের ভিসা পদ্ধতি চালু হবে বলে বৃহস্পতিবার জানিয়েছেন সে দেশের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী প্রীতি পটেল। তাঁর কথায়, ‘সবচেয়ে সম্ভাবনাময় এবং শ্রেষ্ঠরাই ব্রিটেনে এসে কাজের সুযোগ পাবেন।’ সংশ্লিষ্ট ক্ষেত্রে কর্মদক্ষতা, শিক্ষাগত যোগ্যতা, বেতন এবং কী কাজ করতে চান—তার ভিত্তিতেই পয়েন্ট নির্ধারিত হবে। আর সেই নিরিখেই দেওয়া হবে কাজের ভিসা। এই ভিসার জন্য ইংরেজি বলার দক্ষতা আবশ্যিক হবে বলে জানিয়েছেন প্রীতি। বিরোধী লেবার পার্টির বক্তব্য, নতুন ভিসা-নীতির জন্য তৈরি হওয়া ‘প্রতিকূল পরিস্থিতি’তে শ্রমিক পাওয়া কঠিন হবে। লিবারাল ডেমোক্র্যাটদের মতে, বিদেশিদের সম্পর্কে অহেতু ভয় থেকেই সরকারের এমন সিদ্ধান্ত। গত ৩১ জানুয়ারি প্রাথমিক ভাবে ইউরোপীয় ইউনিয়ন (ইইউ) ছেড়েছে ব্রিটেন। এক বছর চলবে ‘ট্রানজ়