নারীর অগ্রযাত্রা

মার্কিন কংগ্রেসে লড়তে চান বাংলাদেশি নাবিলাহ

মার্কিন কংগ্রেসে লড়তে চান বাংলাদেশি নাবিলাহ

মার্কিন কংগ্রেস নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করার ঘোষণা দিয়েছেন বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত নাবিলাহ ইসলাম। তিনি ডেমোক্র্যাট দলের হয়ে জর্জিয়া অঙ্গরাজ্য থেকে নির্বাচনে অংশ নেয়ার ইচ্ছার কথা জানিয়েছেন। একজন কমিউনিটি সংগঠক হিসেবে জর্জিয়ায় বেশ পরিচিত নাম নাবিলাহ। তিনি বাংলাদেশি অভিবাসী দম্পতির সন্তান। জয়ী হলে মার্কিন কংগ্রেসে প্রথম বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত সদস্য হিসেবে ইতিহাসে জায়গা করে নেবেন জর্জিয়া স্টেট ইউনিভার্সিটি থেকে স্নাতক নাবিলাহ ইসলাম। তার প্রাথমিক লক্ষ্য ডেমোক্রেটিক পার্টির প্রার্থিতা নিশ্চিত করা। গত নির্বাচনে এ আসনে সামান্য ব্যবধানে পরাজিত হন ডেমোক্র্যাটের প্রার্থী ক্যারোলিন বুরডিওক্স। তিনি পুনরায় ডেমোক্রেটিক দল থেকে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন বলে জানিয়েছেন। কংগ্রেসের ওই আসনটি গত দুই দশকের বেশি সময় ধরে ক্ষমতাসীন রিপাবলিকান পার্টির দখলে। গত নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বী ডেমোক্র্যাট প্রার্থীকে
অ্যামাজনের পরিচালক হলেন ভারতীয় বংশোদ্ভূত ইন্দ্রা

অ্যামাজনের পরিচালক হলেন ভারতীয় বংশোদ্ভূত ইন্দ্রা

ভারতীয় বংশোদ্ভূত ইন্দ্রা নুই কে পরিচালক হিসেবে নিয়োগ দিয়েছে প্রযুক্তি কোম্পানি অ্যামাজন ডটকম। ইন্দ্রা পানীয় কোম্পানি পেপসিকোর চেয়ারম্যান ও সাবেক প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা। অ্যামাজনের ১১ বোর্ড সদস্যের মধ্যে এখন পাঁচজন হলেন নারী। প্রতিষ্ঠানের বৈচিত্র্য আনতে নারী ও সংখ্যালঘুদের নিয়োগ দিচ্ছে অ্যামাজন। ২০১৮ সালে কোম্পানিটি জানিয়েছিলো, নির্বাহী বোর্ডে নারী সদস্যো সংখ্যা কম হওয়ায় নতুন নীতির অধীনে তারা নির্বাহী বোর্ডে বৈচিত্র আনতে যাচ্ছে। অ্যামাজনের নির্বাহী বোর্ডের অডিট কমিটিতে থাকবেন ইন্দ্রা। ১২ বছর ধরে সফল ভাবে নেতৃত্বের পর ২০১৮ সালের অক্টোবরে পেপসিকোর প্রধান নির্বাহীর পদ ছেড়েছিলেন তিনি। ১৯৯৮ সালে পেপসিকোতে যোগ দেয়া ইন্দ্রা ২০০৬ সালে প্রধান নির্বাহীর দায়িত্ব পান। ১৯৫৫ সালে ভারতের চেন্নাইয়ে জন্ম নেওয়া ইন্দ্রা নুই বিশ্বের অন্যতম নারী ব্যবসায়িক নেতা। ২০১৭ সালে মার্কিন সাময়িকী ফোর্বস এর ১
রাজকুমারী রিমা সৌদি আরবের প্রথম নারী রাষ্ট্রদূত

রাজকুমারী রিমা সৌদি আরবের প্রথম নারী রাষ্ট্রদূত

যুক্তরাষ্ট্রের পরবর্তী রাষ্ট্রদূত হচ্ছেন সৌদি রাজকুমারী রিমা বিনতে বানদার আল-সৌদ। কোন নারীকে এই প্রথমবার রাষ্ট্রদূত হিসেবে নিয়োগ দিল দেশটি। শনিবার (২৩ ফেব্রুয়ারি) এক অধ্যাদেশের মাধ্যমে তাকে নিয়োগ দেওয়া হয়। জনসমক্ষে তার নিয়োগের ঘোষণা দেওয়া হয়। রিমা তার শৈশবের কিছু সময় ওয়াশিংটন ডিসিতে কাটিয়েছেন। পড়াশোনা করেছেন যুক্তরাষ্ট্রে। তিনি খুবই কঠিন সময়ে রাষ্ট্রদূতের দায়িত্ব পেলেন। কারণ সাংবাদিক জামাল খাসোগির মৃত্যু নিয়ে সৌদি আরব আন্তর্জাতিক পর্যায়ে বেকায়দা অবস্থায় রয়েছে। ২০১৮ সালের ২ অক্টোবর তুরস্কের ইস্তাম্বুলে সৌদি কনস্যুলেট ভবনে হত্যার শিকার খাসোগির মৃত্যু নিয়ে একেকবার একেক রকম ব্যাখ্যা দিয়েছে সৌদি আরব। তাদের ব্যাখ্যাগুলোও ছিল সাংঘর্ষিক। মার্কিন গোয়েন্দা প্রতিবেদন অনুসারে, যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমানের নির্দেশ ছাড়া কনস্যুলেট ভবনের মতো জায়গায় এই হত্যা সম্ভব নয়। একসময় সৌদি রাজপরিবারে অবাধে
রেসিং কার চালিয়ে তাক লাগিয়ে দিচ্ছেন সৌদির এই তরুণী

রেসিং কার চালিয়ে তাক লাগিয়ে দিচ্ছেন সৌদির এই তরুণী

সৌদি আরব ই পৃথিবীর একমাত্র দেশ, যেখানে মেয়েদের গাড়ি চালানো নিষিদ্ধ ছিল। সে নিষেধাজ্ঞা উঠে গিয়েছে মাস কয়েক আগে। যে দেশে এই সে দিন পর্যন্ত মেয়েদের গাড়ি চালানো নিষিদ্ধ ছিল, সে দেশেরই এক মেয়ে এ বার রেসিং কার চালিয়ে তাক লাগিয়ে দিলেন। ২০১৭ সালের সেপ্টেম্বর মাসে দেশের কর্ণধার রাজা সলমন ঘোষণা করেন, মেয়েদের গাড়ি চালানোর উপর নিষেধাজ্ঞা তুলে নেওয়া হবে। এর পরই মুক্তির হাওয়া দেখে সৌদির প্রমীলা বাহিনী। ২০১৮ সালের ২৪ জুন মধ্য রাতে রিয়াধের রাস্তায় ইতিহাস সৃষ্টি হয়। কয়েক দশকের নিষেধের বাধা অতিক্রম করে ছুটে চলে গাড়ি, যার স্টিয়ারিং এক মহিলার হাতে। এ বার রেসিং কারের স্টিয়ারিং হাতে নিলেন রীমা আল জুফালি। জুনে লাইসেন্স পাওয়ার পরই অক্টোবরেই প্রথম রেসে অংশ নেন রীমা। কলেজে পড়তে পড়তেই ফর্মুলা ওয়ানের অনুরাগী হয়ে উঠেছিলেন রীমা। তার পর রেসিং কার লাইসেন্সের জন্য আবেদন। ফর্মুলা কার রেসিং স্কুলে পাঠ ন
ছয় বছরে ১০ হাজার কোটি টাকার মালিক তরুণ উদ্যোক্তা

ছয় বছরে ১০ হাজার কোটি টাকার মালিক তরুণ উদ্যোক্তা

অঙ্কিতি বসু ব্যবসা শুরু করেছিলেন মাত্র ২১ লাখ টাকা নিয়ে। চার বছরে তা ফুলেফেঁপে দাঁড়াল ৯ হাজার ৮০০ কোটিতে। মাত্র ২৭ বছর বয়সে এই অসম্ভবকে সম্ভব করে দেখালেন ভারতের এই বাঙালি তরুণী। কোনো সংস্থার ব্যবসা ১০০ কোটি মার্কিন ডলার পেরোলে, কাল্পনিক জন্তুর নাম অনুসারে ইউনিকর্ন তকমা জোটে। অঙ্কিতির ফ্যাশন ই-কমার্স সংস্থা জিলিঙ্গো ইতোমধ্যে তা পেয়েছে। তার এই সাফল্যের জেরে কনিষ্ঠতম ভারতীয় নারী নির্বাচিত হলেন অঙ্কিতি, যিনি কোনো ইউনিকর্ন সংস্থার সহ-প্রতিষ্ঠাতা এবং সিইও। বাঙালি পরিবারে জন্ম হলেও, বাইরেই বেড়ে ওঠা অঙ্কিতি বসুর। ২০১২ সালে মুম্বাইয়ের সেন্ট জেভিয়ার্স কলেজ থেকে অর্থনীতি ও গণিত নিয়ে পড়াশোনা করেন তিনি। তারপর চাকরি শুরু করেন মার্কিন কনসাল্টিং সংস্থা ম্যাকিনজির মুম্বাই শাখায়। সেখান থেকে যোগ দেন অন্য মার্কিন সংস্থা সেকোয়া ক্যাপিটালসের বেঙ্গালুরু অফিসে। তেইশ বছর বয়সে বেঙ্গালুরুতেই বছর চব্বিশের ধ্
পুরুষ ফুটবল দলের নারী কোচ

পুরুষ ফুটবল দলের নারী কোচ

বাংলাদেশের চ্যাম্পিয়নশিপ লিগের একটি দল ঢাকা সিটি এফসি। এই দলের কোচ হয়েছেন সাবেক ফুটবলার মিরোনা খাতুন।বাংলাদেশে এই প্রথম কোনো পুরুষ ফুটবল দলের কোচের দায়িত্ব পেয়েছেন কোনো নারী। ঢাকা সিটি এফসি চ্যাম্পিয়নশিপ লিগের একটি নতুন ক্লাব যেটি নৌবাহিনীর সহযোগিতায় গড়ে উঠেছে। মূলত তার এএফসি কোচিং লাইসেন্সের কারণেই চাকরিটা পাওয়া। ঢাকা সিটি এফসির প্রধান কোচ আবু নোমান নান্নু সি লাইসেন্সধারী। কিন্তু চ্যাম্পিয়নশিপ লিগে শর্ত ন্যুনতম এএফসির বি লাইসেন্সধারী হতে হবে। ২০১৮ সালের ২৪শে ডিসেম্বর থেকেই নিয়মিত অনুশীলন করান মিরোনা। বিবিসি বাংলা মিরোনা খাতুনের সাথে কথা বলে তার কাছে প্রশ্ন রাখা হয় কতটা চ্যালেঞ্জিং এই কাজ? "আমি ডিসেম্বর মাসের ২৪ তারিখ যোগ দেই, আমি যখন জানতে পারি আমি খুবই অবাক হই, কখনো ভাবিনি এমন হবে" উচ্ছাস প্রকাশ করেন মিরোনা। নিজের কোচিং ক্যারিয়ারের পেছনে বাংলাদেশের মেয়েদ
বাইক নিয়ে দুর্গম গিরিপথ জয় করে চলেছেন পল্লবী

বাইক নিয়ে দুর্গম গিরিপথ জয় করে চলেছেন পল্লবী

বাবার বাইকের পিছনের বসে ঘুরে বেড়াতে ভাল লাগত তাঁর। সেই থেকেই শুরু বাইকের প্রতি প্রেম। ইনি পল্লবী ফৌজদার। বয়স ৩৯। বিশ্বের অন্যতম সেরা বাইকারদের মধ্যে নাম রয়েছে ভারতীয় এই গৃহবধূরও। পল্লবীর স্বামী পরীক্ষিৎ মিশ্র একজন সেনা অফিসার। তিনি পাশে না থাকলে একা গৃহবধূর পক্ষে লড়াইটা সম্ভব হত না বলে জানিয়েছেন দুই ছেলের মা পল্লবী। দিল্লির গৃহবধূ পল্লবীই পৃথিবীর একমাত্র ব্যক্তি, যিনি ভারতের অন্যতম কঠিন গিরিপথ উমলিংলা পাস, সাথাতোলা পাস ও মানা পাস জয় করেছেন বাইক চড়ে। শুরুটা হয়েছিল বেঙ্গালুরু, উধমপুর, লখনউ, জম্মু, শ্রীনগর, পঞ্জাব, এই শহরগুলোয় একা বাইক চালিয়ে ঘুরে বেড়ানোর নেশা থেকে। তবে বাধা এসেছে তো বটেই। বছর চারেক আগে প্রথম বার যখন মাউন্টেন বাইকিং শুরু করলেন, এক ছেলের বয়স ছয়, অন্য জনের নয়। ছেলেদের প্রতি দায়িত্ব নেই, এমন কথাও শুনতে হয়েছে তাঁকে। ২০১৫ সালের ৭ জুলাই প্রথম একা লাদাখে যান বাইক
অক্সফোর্ড স্টুডেন্ট ইউনিয়নের সভাপতি বাংলাদেশি আনিশা

অক্সফোর্ড স্টুডেন্ট ইউনিয়নের সভাপতি বাংলাদেশি আনিশা

বিশ্ববিখ্যাত বিশ্ববিদ্যালয় অক্সফোর্ডের ছাত্রদের নেতৃত্বদানকারী সংগঠন ( ছাত্র সংসদ) অক্সফোর্ড স্টুডেন্ট ইউনিয়নের  সভাপতি নির্বাচিত হয়েছেন আনিশা ফারুক। অক্সফোর্ডের ইতিহাসে আনিশা ফারুক  প্রথম বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত শিক্ষার্থী যিনি সভাপতি নির্বাচিত হলেন। ৭ ফেব্রুয়ারি সন্ধ্যায় অক্সফোর্ডের ওয়েস্টন লাইব্রেরিতে নির্বাচনের ফলাফল ঘোষণা করা হয়। তিন দফায় অনুষ্ঠিত ছাত্রদের প্রতিনিধিত্বশীল এই সংগঠনে চুড়ান্ত পর্বে  ১৫২৯ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন আনিশা ফারুক। ৪৭৯২ জন ভোটার নির্বাচনে ভোট দিয়েছেন।  আনিশা এর আগে অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের লেবার পার্টির কো চেয়ার হিসাবেও দায়িত্ব পালন করেছেন। আনিশার বাবা অবসরপ্রাপ্ত সেনা কর্মকর্তা মেজর ফারুক আহামেদ, মেয়ের এই সাফল্যে খুবই উচ্ছ্বসিত। বলেন, আনিশা শুধু আমার মুখ উজ্জ্বল করেনি,  আমার দেশের মুখও উজ্জ্বল করেছি। নিজেকে খুব ভাগ্যবান মনে করছেন বলে উল্লেখ করেন। মেজর ফা
‘নোবেলবঞ্চিত’ বিজ্ঞানী রোজালিন্ডের নামে মঙ্গলযান

‘নোবেলবঞ্চিত’ বিজ্ঞানী রোজালিন্ডের নামে মঙ্গলযান

জাহাঙ্গীর সুর জীবনলিপি লেখা আছে যে ডিএনএতে, সেই অণু যে দেখতে মোচড়ানো মইয়ের মতো-এমন সত্য প্রথম আবিষ্কার করেছিলেন রোজালিন্ড ফ্রাংকলিন। কিন্তু জীবন-অণুর সেই মানচিত্র নকল করে নোবেল পেয়েছিলেন অন্য দুই বিজ্ঞানী। নোবেল তো দূরের কথা, জীবদ্দশায় কাজেরই স্বীকৃতি পাননি এই ব্রিটিশ রসায়নবিদ। গতকাল তার নামে একটি মঙ্গলযানের নামকরণ করা হয়েছে রোজালিন্ড ফ্রাংকলিন রোভার। ইউরোপিয়ান স্পেস এজেন্সি (ইসা) গতকাল তাদের ওয়েবসাইটে এ খবর দেয়। বিশ্ব বিজ্ঞানমহল এমন উদ্যোগকে সমর্থন জানিয়েছে। বাংলাদেশের বিজ্ঞান লেখক খালেদা ইয়াসমিন ইতি গতকাল টেলিফোনে এই প্রতিবেদককে বলেন, ‘এমন স্বীকৃতি সত্যিকার অর্থে বড় পাওয়া। ফ্রাংকলিন বেঁচে থাকতে এমন কিছু হলে তিনি কিছুটা আনন্দ পেতেন। আমি বলব, এমন স্বীকৃতির মাধ্যমে যুক্তরাজ্য তাদের ঐতিহাসিক অপারাধবোধ কিছুটা কমাল।’ ২০২০ সালে মঙ্গলের উদ্দেশে উড়ে যাবে রোজালিনন্ড ফ্রাংকলিন রোভার। একুশ সা
লিডারশিপ অ্যাওয়ার্ড পেলেন ইয়াশা সোবহান

লিডারশিপ অ্যাওয়ার্ড পেলেন ইয়াশা সোবহান

সেরা ব্র্যান্ড তৈরিতে অসামান্য অবদান রাখায় এশিয়ার অন্যতম সেরা পুরস্কারে ভূষিত হয়েছেন বসুন্ধরা গ্রুপের পরিচালক ইয়াশা সোবহান। তৃতীয় এশিয়াস গ্রেটেস্ট ব্র্যান্ডস অ্যান্ড লিডার্স ২০১৮ অনুষ্ঠানে ‘ব্ল্যাকসোয়ান উইমেন এমপাওয়ারমেন্টস প্রিন্সিপালস লিডারশিপ অ্যাওয়ার্ড ২০১৮’ পুরস্কার অর্জন করেছেন তিনি। গত ২১ জানুয়ারি সিঙ্গাপুরের ম্যারিনা বে সেন্ডস এক্সপো অ্যান্ড কনভেনশন সেন্টারে এশিয়ার শীর্ষ ব্যবসায়ী ও ব্র্যান্ডগুলোকে নিয়ে আয়োজিত অনুষ্ঠানে তিনি পুরস্কার গ্রহণ করেন। মেধা, পরিশ্রম ও যোগ্যতায় এগিয়ে যাচ্ছেন এ দেশের নারীরা। যাঁরা শুধু দেশে নয়, এশিয়া ও বিশ্ব আঙ্গিনায়ও সফল ও সমাদৃত হচ্ছেন। তাঁদের অন্যতম ইয়াশা সোবহান। ইউআরএস-এশিয়াওয়ান ম্যাগাজিন এবং ইউআরএস মিডিয়া কনসালটিং পিএল আয়োজিত ব্যবসায়ীদের এ সম্মেলনে শতাধিক ব্র্যান্ড ও লিডার অ্যাওয়ার্ড বিজয়ীদের অভিনন্দিত করা হয়। এশিয়ার বিভিন্ন দেশের গুরুত্বপূর্ণ