মাতৃগর্ভে করোনা সংক্রমণ, দাবি ফরাসি চিকিৎসক দলের - Women Words

মাতৃগর্ভে করোনা সংক্রমণ, দাবি ফরাসি চিকিৎসক দলের

মাতৃগর্ভে করোনাভাইরাস সংক্রমিত হওয়ার প্রমাণ মিলেছে বলে দাবি করেছেন ফ্রান্সের চিকিৎসকরা। তাদের দাবি, সম্প্রতি করোনা আক্রান্ত মায়ের গর্ভ থেকে সংক্রমিত হয়েছে এক নবজাতক। ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম দ্য গার্ডিয়ানের প্রতিবেদন থেকে এসব তথ্য জানা গেছে।

চিকিৎসকদের দাবি, সম্প্রতি করোনা আক্রান্ত মায়ের গর্ভ থেকে সংক্রমিত হয়েছে এক নবজাতক। মাতৃগর্ভে যে এ ধরনের সংক্রমণ ঘটতে পারে সে ব্যাপারে নিজেদের দাবি সন্দেহাতীত বলে উল্লেখ করেছে ওই চিকিৎসক দল। তবে তারা এও জানিয়েছেন, এ ধরনের সংক্রমণ সচরাচর ঘটে না।

মায়ের গর্ভে থাকা অবস্থায় শিশুর শরীরে করোনা সংক্রমিত হয় কিনা তা নিয়ে বিভিন্ন গবেষণা চলছে। জন্মের পর পরই করোনা শনাক্ত হওয়া বেশ কিছু শিশুর ব্যাপারে গবেষকরা ধারণা করেছিলেন তারা মাতৃগর্ভেই সংক্রমিত হয়ে থাকতে পারে। তবে নিজেদের দাবির পক্ষে শক্ত কোনও প্রমাণ উপস্থাপন করতে পারেননি তারা। ডেলিভারির সময় কিংবা ডেলিভারির পর পরই ওই নবজাতকরা আক্রান্ত হয়েছে কিনা সে সম্ভাবনাও উড়িয়ে দিতে পারেননি ওই গবেষকরা। তবে এবার ফ্রান্সের চিকিৎসক দল দাবি করেছে, এ ধরনের সংক্রমণের ঘটনা প্রমাণিত।

গত ২৪ জুন জ্বর ও কাশি নিয়ে প্যারিসের এন্টোইন বাক্লিয়ার হাসপাতালে ভর্তি হন ২৩ বছর বয়সী অন্তঃসত্ত্বা নারী। ভর্তি হওয়ার পর পরই জানা যায়, তিনি করোনায় আক্রান্ত। ভর্তি হওয়ার তিনদিন পর হঠাৎ করে চিকিৎসকরা লক্ষ্য করেন বাচ্চার নড়াচড়া কম হচ্ছে। দ্রুত সিজারিয়ান অপারেশনের মধ্য দিয়ে ডেলিভারি করা হয়। জন্মের কয়েকদিনের মাথায় ওই শিশু মস্তিষ্কে প্রদাহ দেখা দেয়। করোনা পরীক্ষার ফলও পজিটিভ আসে। আরও বিস্তারিত পরীক্ষা-নীরিক্ষ শেষে জানা যায়, মায়ের রক্ত থেকে প্লাসেন্টায় ছড়িয়ে পড়েছিল ভাইরাস। সেখান থেকেই আক্রান্ত হয়েছে শিশুটি।

হাসপাতালের শিশু বিশেষজ্ঞ ড্যানিয়েল দে লুকা বলেন, ‘দুর্ভাগ্যজনক হলেও সত্যি যে এ ধরনের সংক্রমণের ব্যাপারে কোনও সন্দেহ নেই। চিকিৎসকদের অবশ্যই সচেতন হতে হবে যে এটি হতে পারে। এটি সচরাচর ঘটে এমন নয়, তবে এটা যে হতে পারে তা নিশ্চিত।