এপ্রিল ২৮, ২০২০ - Women Words

Day: এপ্রিল ২৮, ২০২০

করোনার চিকিৎসা দিতে গিয়ে শেষে চিকিৎসকের আত্মহত্যা

করোনার চিকিৎসা দিতে গিয়ে শেষে চিকিৎসকের আত্মহত্যা

উইমেন ওয়ার্ডস ডেস্ক :: যুক্তরাষ্ট্রের ম্যানহাটনে অবস্থিত নিউইয়র্ক-প্রেসবিটেরিয়ান অ্যালেন হাসপাতালের জরুরি বিভাগের মেডিকেল ডিরেক্টর তিনি। করোনা সংক্রমণ শুরুর পর থেকে অসংখ্য রোগীকে চিকিৎসা দিয়েছেন। কেউ সুস্থ হয়েছেন, কেউ মারা গেছেন। করোনা যুদ্ধের ফ্রন্ট লাইনের যুদ্ধ ডা. লর্না ব্রিন শেষ পর্যন্ত নিজেই নিজের কাছে পরাজিত হলেন যেন। করোনা রোগের ভয়াবহত সহ্য করতে না পেরে আত্মহত্যা করলেন তিনি। গত রবিবার তিনি আত্মহত্যা করেন বলে নিশ্চিত করেন লর্নার বাবা ডা. ফিলিপ ব্রিন ও পুলিশ। নিউইয়র্ক টাইমস এক প্রতিবেদনে জানায়, ৪৯ বছর বয়সী ওই চিকিৎসক ভার্জিনিয়ার শার্লটসভিলে নিজের পরিবারের সঙ্গে অবস্থান করছিলেন। সেখানেই তিনি মারা যান। বাবা ফিলিপ ব্রিন বলেন, ‘সে তার কাজ করার চেষ্টা করেছে, যা তাকে মেরে ফেলেছে।‘ লর্নার বাবা জানান, শেষবার মেয়ের সঙ্গে যখন কথা বলেন, তখন তাকে ‘সবকিছু থেকে বিচ্ছিন্ন’ লাগছিল। তার মেয়ে তাক
অক্সফোর্ডের করোনার ভ্যাকসিন গবেষক দলে বাঙালি নারী

অক্সফোর্ডের করোনার ভ্যাকসিন গবেষক দলে বাঙালি নারী

উইমেন ওয়ার্ডস ডেস্ক :: সারা বিশ্বে ছড়িয়ে পড়েছে মহামারি করোনাভাইরাস। এই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে লাখো মানুষ মারা গেছেন। লাখ লাখ মানুষ করোনায় আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি। এখনো কোনো ধরনের ওষুধ বা ভ্যাকসিন উদ্ভাবন করা সম্ভব হয়নি। তবে অক্সফোর্ড ইউনিভার্সিটির একটি গবেষক দল করোনার টীকা আবিষ্কারের অনেকটা কাছাকাছি পৌঁছে গেছেন। আর সেই দলের অন্যতম সদস্য কলকাতার বাসিন্দা বাঙালি নারী চন্দ্রা দত্ত। অক্সফোর্ডে বসবাসারী ৩৪ বছরের চন্দ্রা কোয়ালিটি অ্যাসিউরেন্স ম্যানেজার হিসেবে কাজ করছেন। গত বৃহস্পতিবার মানব শরীরের পরীক্ষামূলকভাবে প্রয়োগ করা হয়েছে এই ভ্যাকসিন। হিউম্যান ট্রায়ালে উত্তীর্ণ হয়ে গেলে এই ভ্যাকসিন আগামী সেপ্টেম্বর-অক্টোবর মাসে সাধারণের জন্য পাওয়া যাবে। করোনা ভ্যাকসিন টিমের সঙ্গে কাজ করতে পেরে অত্যন্ত গর্বিত বোধ করছেন বলে জানিয়েছেন চন্দ্রা। কলকাতার গলফ গার্ডেনের বাসিন্দা চন্দ্রা গোখলে মেমোরিয়াল গ
তবে  কী নারী নেতৃত্ব আসছে উত্তর কোরিয়ায়!

তবে  কী নারী নেতৃত্ব আসছে উত্তর কোরিয়ায়!

উইমেন ওয়ার্ডস ডেস্ক :: নিষেধাজ্ঞা উপেক্ষা করে ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা, বৈরি মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের দিকে বন্ধুত্বের হাত বাড়ানো- কত কী করেই না বরাবর বিশ্বজুড়ে আলোচনায় থেকেছেন উত্তর কোরিয়ার শাসক কিম জং উন। করোনার প্রকোপে গোটা বিশ্ব যখন তটস্থ, সেইসময়ও কিমের শারীরিক অবস্থার খবর জায়গা করে নিয়েছে শিরোনামে। তবে তাঁর পাশাপাশি আরও এক জনের দিকে এই মুহূর্তে চোখ আটকে গোটা বিশ্বের। তিনি আর কেউ নন, কিম জং উনেরই ছোট বোন কিম ইয়ো জং। দাদার উত্তরসূরি হিসাবে তাঁর উঠে আসার সম্ভাবনা নিয়ে জল্পনা শুরু হয়ে গিয়েছে কূটনৈতিক মহলে। চলতি মাসের মাঝামাঝি সময় থেকে জনসমক্ষে দেখা যায়নি কিম জং উনকে। দাদা কিম ইল সাংয়ের জন্মবার্ষিকী পালন উৎসবেও দেখা যায়নি তাঁকে। তখন থেকেই তাঁর অনুপস্থিতির কারণ নিয়ে জল্পনা শুরু হয়। পরে দক্ষিণ কোরিয়ার একটি ওয়েব পোর্টাল জানায়, হৃদযন্ত্রে অস্ত্রোপচারের পর সঙ্কটজনক অবস্থায় রয়েছেন কিম। সোলের তরফে স