মেয়েদের শিরোপা পুনরুদ্ধারের মিশন - Women Words

মেয়েদের শিরোপা পুনরুদ্ধারের মিশন

২০১৭ সালে সাফ অনুর্ধ-১৫ ওমেন্স চ্যাম্পিয়নশিপের প্রথম আসরে ভারতকে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন হয়েছিল বাংলাদেশ। ২০১৮ সালে এই ভারতের কাছে হেরে মুকুট হারায় বাংলার মেয়েরা। এবার ভুটানে শুরু হতে যাচ্ছে তৃতীয় আসর।লক্ষ্য তাই হারানো শিরোপা পুনরুদ্ধার।  আগামী ৯ অক্টোবর ভুটানের চাংলিমিথাং স্টেডিয়ামে শুরু হবে বয়সভিত্তিক এই প্রতিযোগিতা।

আসরে অংশ নিতে আজ ভুটান যাচ্ছে বাংলাদেশ দল। অপেক্ষাকৃত নতুনদের নিয়ে এবার বাংলাদেশ দল গঠন করা হয়েছে। দলের লক্ষ্য ও প্রত্যাশা নিয়ে রবিবার বাফুফে ভবনে সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। সেখানে দলের কোচ গোলাম রব্বানী ছোটন ও অধিনায়ক শামছুন্নাহার (জুনিয়র) দু’জনেই শিরোপা জয়ের প্রত্যয়ের কথা শুনিয়েছেন। সংবাদ সম্মেলনে আরও উপস্থিত ছিলেন বাফুফে মহিলা ফুটবল কমিটির চেয়ারম্যান মাহফুজা আক্তার কিরণ, বাফুফে সদস্য ও দলের ম্যানেজার মোঃ আমিরুল ইসলাম বাবু, সহকারী কোচ মাহাবুবুর রহমান লিটু ও সহ-অধিনায়ক অধিনায়ক রূপনা চাকমা।

এবারের আসরে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছে ভারত, বাংলাদেশ, ভুটান ও নেপাল। রাউন্ড রবিন লীগ শেষে সেরা দুই দল ১৫ অক্টোবর ফাইনালে মুখোমুখি হবে। টুর্নামেন্টে নিজেদের লক্ষ্যের কথা জানিয়ে কোচ গোলাম রব্বানী ছোটন বলেন, ‘২০১৮ সালেই আমরা বুঝতে পারি যে আমাদের আগের স্কোয়াড থেকে মনিকা, মারিয়া, তহুরা বা আঁখির মতো অভিজ্ঞত প্রায় ১৫ জন এবার খেলতে পারবে না। এ কারণে এই বিষয়টা মাথায় রেখেই আমরা বিভিন্ন ইভেন্ট থেকে নতুন প্রতিভাবান খেলোয়াড় সংগ্রহ শুরু করি। আমাদের একজন গোলকিপার প্রায় ৬ ফিট। অভিযোগ আসে যে গোলকিপার লম্বা না হলে গোল খায়, সেক্ষেত্রে আমরা দেখেছি অস্ট্রেলিয়া আর থাইল্যান্ডের গোলকিপার লম্বা হওয়া সত্ত্বেও অনেক বেশি গোল খেয়েছিল। অন্যদিকে আমাদের রূপন চাকমা যথেষ্ট ভাল করেছে।’

ছোটন বলেন, ‘মেয়েরা নিবিড় অনুশীলনের মধ্যে ছিল। সবাই ভাল আছে। এখন আমরা মারিয়া-আঁখিদের নিয়ে কথা বলি। শুরুতে ওরাও এদের মতো ছিল। নার্সিং হলে এরাও ওদের মতো হবে। সবাই শক্তিশালী দল। প্রতিযোগিতামূলক টুর্নামেন্ট হবে। গত দুইবার ফাইনাল খেলেছি, আশাকরি এবারও আমরা ফাইনাল খেলব। এই টুর্নামেন্ট আমাদের জন্য বড় চ্যালেঞ্জ। যদি আপনারা বিগত দিনে ফিরেন, ২০১৭ সালে, তখন মৌসুমীরা নতুন ছিল। এখন এরাও নতুন কিন্তু এরা অনেকদিন এক সঙ্গে অনুশীলনের মধ্যে আছে। কঠোর পরিশ্রম করেছে। দল নিয়ে আমি আশাবাদী। আমরা চ্যাম্পিয়ন হতে চাই।’ বাংলাদেশ দলের অধিনায়ক শামছুন্নাহার জুনিয়রও শিরোপা ছাড়া কিছুই ভাবছে না, ‘এই টুর্নামেন্টে আমরা দুইবার খেলছি। প্রথমবার ঢাকায় চ্যাম্পিয়ন হয়েছি। পরেরবার ভুটানে রানার্সআপ হয়েছি। দোয়া করবেন আমরা যেন ফাইনাল খেলতে পারি। আগেরবার ভাল খেলেও পারিনি। এবারও চেষ্টা করব চ্যাম্পিয়ন হওয়ার।’ সহ-অধিনায়ক রূপনা চাকমা বলেন, ‘সবাই দোয়া করবেন আমরা যেন ভাল খেলতে পারি। চ্যাম্পিয়ন হতে পারি।’