জঙ্গল থেকে উদ্ধার হওয়া মরদেহটি নোরার | | Women Words

জঙ্গল থেকে উদ্ধার হওয়া মরদেহটি নোরার

নিখোঁজের নয়দিন পর ১৫ বছরের বুদ্ধিপ্রতিবন্ধী নোরা কুয়োইরিনের মরদেহ উদ্ধার করেছে মালয়েশিয়া পুলিশ। মঙ্গলবার জঙ্গলের ভেতর থেকে একটি মরদেহ উদ্ধার করা হয়। মরদেহটি মেয়ের বলে শনাক্ত করেছেন নোরার বাবা-মা।

বাবা-মায়ের সঙ্গে যুক্তরাজ্য থেকে মালয়েশিয়ায়র দুসান ফরেস্ট ইকো রিসোর্টে বেড়াতে গিয়েছিল নোরা। গত ৪ আগস্ট সেখান থেকে নিখোঁজ হয় সে। খবর বিবিসির।

পুলিশ জানিয়েছে, নোরা যেখান থেকে নিখোঁজ হয় তার পাশেই একটি মরদেহ উদ্ধার করা হয়। তবে বিবিসির প্রতিবেদক জানিয়েছেন, দুসানের ২ কিলোমিটার দূরে নোরার মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

মালয়েশিয়ার উপ পুলিশ প্রধান মাজলান মনসুর জানান, নোরার মরদেহ পাহাড়ি এলাকায় পাওয়া যায়।

পরিবারের দাবি, নোরাকে অপহরণ করা হয়। তবে পুলিশ বলছে, এটি একটি নিখোঁজ কেস।

নোরাকে খুঁজতে কাজ শুরু করেন পুলিশের ৩৫০ সদস্য। তার সন্ধান পেলে তাৎক্ষণিকভাবে খবর পেতে আলাদা একটি হটলাইন নম্বরও চালু করে মালয়েশিয়ার পুলিশ।

নোরার পরিবার নোরার খবর দিতে পারলে তাকে ১০ হাজার পাউন্ড পুরস্কার দেওয়ার ঘোষণা দেয়।

নোরাকে খুঁজতে মালয়েশিয়ার পুলিশকে সহায়তা দেওয়া শুরু করে যুক্তরাজ্যের ন্যাশনাল ক্রাইম এজেন্সি, পুলিশ ও আইরিশ পুলিশ। গভীর জঙ্গলেও অভিযান চালানো হয়।