চকলেট দেখিয়ে ধর্ষণ চেষ্টা, বাবাকে ধরিয়ে দিল মেয়ে | | Women Words

চকলেট দেখিয়ে ধর্ষণ চেষ্টা, বাবাকে ধরিয়ে দিল মেয়ে

ভারতের জামশেদপুরের বিরসা বস্তি এলাকায় চকলেটের লোভ দেখিয়ে চার বছরের দুধের শিশুকে ধর্ষণের চেষ্টা করছিলেন এক ব্যক্তি। কিন্তু নিজের ১৫ বছর বয়সী মেয়ের জন্য তা আর করতে পারেননি। ওই শিশুকে ধর্ষণের হাত থেকে রক্ষা করেন অভিযুক্তের মেয়ে।

ভারতের জনপ্রিয় সংবাদমাধ্যম আনন্দবাজার সূত্রে জনা যায়, গতকাল শনিবার দুপুরের এ ঘটনা। অভিযুক্ত ব্যক্তি তারই নিকট আত্মীয়ার সন্তানকে ধর্ষণের চেষ্টা করছিলেন বলে অভিযোগ। সেই অবস্থায় তার মেয়ে দেখে ফেলে। একটুও সময় নষ্ট না করে সে তার বাবাকে ঝাঁপিয়ে পড়ে মারতে শুরু করে। শিশুটিকে উদ্ধারও করে সে ঘরের দরজা বাইরে থেকে বন্ধ করে দেয়। পরে চিৎকার করা শুরু করে। তারপর প্রতবেশীরা আসলে খবর দেওয়া হয় সোনারি থানায় ও স্থানীয় অঙ্গনবাড়ি কর্মীদের। শিশুটিকে স্থানীয় একটি হোমে পাঠানো হয়।

সোনারি থানার পুলিশ কর্মকর্তা নরেশ সিংহ বলেন, ‘আমরা ওই ব্যক্তির বিরুদ্ধে মামলা রুজু করেছি। শিশুটির সমস্ত ডাক্তারি পরীক্ষা করা হয়েছে।’

ঝাড়খণ্ড রাজ্যের সিংভূম চাইল্ড ওয়েলফেয়ার কমিটির সদস্য অলোক ভাস্কর জানান, শিশুটির জন্যে তারা লড়বেন। সোমবার পর্যন্ত আদালত বন্ধ। মঙ্গলবারই শিশুটির বয়ান রেকর্ড করা হবে অপরাধমূলক দণ্ডবিধির ১৬৪ ন‌ম্বর ধারা মেনে। নির্যাতিতা শিশুটির বাড়ি ঝাড়খণ্ডের চাইবাসায়। শিশুটি বাবা মায়ের সঙ্গে মামাবাড়ি বেড়াতে গিয়েছিল।