বগুড়ায় পুলিশ সদস্য রোজিনার আত্মহত্যা


নিউজটি শেয়ার করুন

বগুড়ার ধুনট থানার পুলিশের সহকারী উপপরিদর্শক (এএসআই) রোজিনা খাতুন (৩১) আত্মহত্যা করেছেন।

তিনি নাটোরের সিংড়া উপজেলার বাহাদুরপুর গ্রামের নান্নু মিয়ার মেয়ে।

হাসপাতাল সূত্রে জানা গেছে, গতকাল মঙ্গলবার দুপুরে রোজিনা খাতুন বিষপান করলে তাকে বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিক্যাল কলেজ (শজিমেক) হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। রাতে সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।

এ বিষয়ে ধুনট থানার ওসি ইসমাইল হোসেন জানান, এএসআই রোজিনার আত্মহত্যার কারণ অজ্ঞাত।

তবে নিহতের পরিবারের সদস্যদের দাবি, পারিবারিক কারণে রোজিনা আত্মহত্যা করেছেন।

জানা গেছে, ২০০৭ সালে পুলিশ কনস্টেবল পদে যোগ দেন রোজিনা খাতুন। এর পরের বছর একই গ্রামের আবদুল লতিফ মোল্লার ছেলে হাসান আলীর সঙ্গে তার বিয়ে হয়। তার স্বামী স্থানীয় দমদমা কারিগরি স্কুলের সহকারী শিক্ষক।

প্রতিবেশীরা জানান, রোজিনার পুলিশে চাকরি করাটা তার স্বামী পছন্দ করতেন না। চাকরি ছাড়ার জন্য তাকে মারপিটও করা হতো। তিনি মাঝে মাঝে তার ফেসবুকে হতাশার কথা শেয়ার করতেন।

এ ব্যাপারে ধুনট থানার ওসি (তদন্ত) ফারুকুল ইসলাম জানান, তদন্ত করলে এএসআই রোজিনার আত্মহত্যার কারণ জানা যাবে। এ ব্যাপারে বগুড়া সদর থানায় একটি অস্বাভাবিক মৃত্যু মামলা হয়েছে।

এ বিষয়ে বগুড়ার ছিলিমপুর পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ এসআই আজিজ মণ্ডল জানান, আজ বুধবার দুপুরে ময়নাতদন্ত শেষে রোজিনার লাশ তার পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হবে।

 

 

 

এই বিভাগের আরও সংবাদ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *