সুবর্ণচরের গণধর্ষণের ঘটনায় আরেকজন গ্রেপ্তার

নিউজটি শেয়ার করুন

নোয়াখালীর সুবর্ণচরে সংঘবদ্ধ ধর্ষণ ও মারধরের ঘটনায় আরেকজনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। এ নিয়ে এ ঘটনায় ১১ জনকে গ্রেপ্তার করা হলো।

আজ শুক্রবার ভোরে কুমিল্লার দাউদকান্দির গৌরীপুর এলাকা থেকে জামাল ওরফে হেঞ্জু মাজিকে (৪০) নোয়াখালী পুলিশের গোয়েন্দা শাখার (ডিবি) একটি দল তাঁকে গ্রেপ্তার করে। গ্রেপ্তার করা জামাল এজাহারভুক্ত আসামি নন। তবে ১৬৪ ধারায় আদালতে দেওয়া জবানবন্দিতে তাঁর নাম এসেছিল। ঘটনার পর থেকে জামাল পলাতক ছিলেন। সুবর্ণচরের মধ্যম বাগ্গা এলাকায় তাঁর বাড়ি।

এখনো এজাহারভুক্ত তিন আসামি গ্রেপ্তার হননি।

নির্যাতনের শিকার নারীর অভিযোগ, তিনি গত ৩০ ডিসেম্বর একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের ভোট গ্রহণের দিন সকালে এলাকার একটি ভোটকেন্দ্রে ভোট দিতে যান। এ সময় কেন্দ্রে থাকা আওয়ামী লীগের কয়েকজন যুবক তাঁকে তাঁদের পছন্দের প্রতীকে ভোট দিতে বলেন। তিনি তাতে রাজি না হলে যুবকেরা তাঁকে দেখে নেওয়ার হুমকি দেন। ওই দিন রাত ১২টার দিকে ছালা উদ্দিন, সোহেল, বেচু, মোশারফসহ ১০ থেকে ১২ জনের একদল যুবক ঘরে ঢুকে প্রথমে স্বামী-স্ত্রী দুজনকে মারধর করেন। পরে স্বামী ও সন্তানদের বেঁধে রেখে ওই নারীকে ঘরের বাইরে পুকুরপাড়ে এনে গণধর্ষণ করেন।

 

এই বিভাগের আরও সংবাদ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *