১৬ বছরে প্রথম যৌন নিগ্রহের কবলে পড়েন কঙ্গনা

নিউজটি শেয়ার করুন

১৬ বছর বয়সে যৌন নিগ্রহের কবলে পড়েছিলেন বলিউড  অভিনেত্রী কঙ্গনা রানাউত। এমনটাই জানালেন সেলুলয়েডের ‘ঝাঁসির রানি’।

স্বজনপোষণ হোক কিংবা #মিটু, বলিউড থেকে একটা আওয়াজ বরাবর সোচ্চার। সেটা হল কঙ্গনা রানাউতের প্রতিবাদী কণ্ঠ। নারীর স্বাধিকারে বিশ্বাসী এই অভিনেত্রী আপাতত ‘মণিকর্ণিকা: দ্য কুইন অব ঝাঁসি’র প্রচারে ব্যস্ত। তার মধ্যেই হায়দরাবাদে সাংবাদিকদের শোনালেন তাঁর কিশোরী বয়সের সেই দুর্ভাগ্যজনক কাহিনি।

কঙ্গনা যখন ১৬ বছরের, তখন তিনি প্রথম যৌন নিগ্রহের অভিযোগ দায়ের করেছিলেন। ছবির প্রচারের ফাঁকে এ বিষয়ে তিনি বলেন, “আমার তখন ১৬ বছর বয়স, সে সময় আমি থানায় প্রথম যৌন নিগ্রহের অভিযোগ দায়ের করেছিলাম।’’ তাঁর মতে, সমাজে এমন অনেকে আছেন যাঁরা প্রতিবাদী। তাই আমাদের উচিত তাঁদের নিরুৎসাহিত না করে পাশে দাঁড়ানো।

নারীদের স্বনির্ভরতার প্রসঙ্গে তাঁর অবস্থান: বিষয়টি সকলের জন্য নয়। তবে যাঁরা স্বনির্ভর হতে চান, তাঁদের হতে দেওয়া উচিত। স্বেচ্ছাসেবী সংস্থাগুলির উচিত সবসময় পিছনে থেকে তাঁদের শক্তি জোগানো।

‘মণিকর্ণিকা’ ছবিতে রানি লক্ষ্মীবাঈয়ের চরিত্রে অভিনয়ের পাশাপাশি এ ছবির অন্যতম নির্দেশক তিনি। পরিচালক হিসেবে এটাই তাঁর প্রথম কাজ কি? এ প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেছেন, “খুব ছোট থেকে তিনি ক্যামেরার পিছনে কাজ করছেন। তাঁর প্রথম কাজ বলতে একটা ১০ মিনিটের স্বল্পদৈর্ঘ্যের ছবি। যাতে অনেক আন্তর্জাতিক কলাকুশলীর সান্নিধ্য তিনি পেয়েছিলেন। পাশাপাশি,সিনেমাটোগ্রাফি, সম্পাদনার মতো কাজও এ যাবৎকাল তিনি করেছেন। চলতি মাসের ২৫ তারিখ মুক্তি পাচ্ছে ‘মণিকর্ণিকা: দ্য কুইন অব ঝাঁসি’। বহু প্রতীক্ষিত এই ছবি দর্শক মনে কতটা জায়গা করে, তার জন্য আর ২০ দিনের অপেক্ষা।

সূত্র: আনন্দবাজার

এই বিভাগের আরও সংবাদ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *