‘ভূমিসূত্র’: সিলেটে নগরনাটের ইন্টার‌্যাক্টিভ স্ট্রিট ড্রামা - Women Words

‘ভূমিসূত্র’: সিলেটে নগরনাটের ইন্টার‌্যাক্টিভ স্ট্রিট ড্রামা

 “সাঁওতাল করেছে ভগবান রে, আমায় মানুষ করেনি ভগবান” এ গানের মধ্য দিয়ে শুরু আর সিঁধু-কানুদের জেগে ‍উঠার বিপ্লবের মধ্য দিয়ে শেষ হওয়া সংলাপবিহীন নাটক কাঁদিয়েছে উপস্থিত শতাধিক দর্শকদের। তারা হয়েছেন স্তম্ভিত, বাকরুদ্ধ।

গত ৬ নভেম্বর গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জে সাঁওতালদের ভিটেমাটিতে আগুন দিয়ে ও গুলি করে উচ্ছেদের প্রতিবাদে সিলেটের অন্যতম সাংস্কৃতিক সংগঠন ‘নগরনাট’ গতকাল বুধবার সন্ধ্যা ৭টায় সিলেট কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার প্রাঙ্গণে পরিবেশন করে এই ইন্টার‌্যাক্টিভ স্ট্রিট ড্রামা ‘ভূমিসূত্র’। এ নাটকের  মধ্য দিয়ে নির্যাতিত সাঁওতালদের প্রতি সংহতি জানানো হয়।

খড় দিয়ে তৈরি করা গোল বৃত্ত। তার মধ্যে মাটির হাড়ি। একপ্রান্তে প্রতিক আকারে লেখা রয়েছে ‘মহামান্য উন্নয়ন’। তার সামনে মাথা নত করে কাঁদছেন এক সাঁওতাল ভূমিপুত্র। আচমকা তার উপর হামলা চালানো হয়। তিনি আতঙ্কিত হয়ে প্রাণ বাঁচাতে তার ঘরে ঢুকেন। তখন সেই খড়ের ঘরে আগুন লাগিয়ে দেয় মহামান্য উন্নয়নের পেঁটোয়া বাহিনী। রক্তস্নাত সেই ভূমিপুত্র তখন এ অন্যায়ের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়ায়। হাতে তুলে নেয় তীর-ধনুক। তাঁর সাথে তখন প্রতিবাদী ভঙ্গিতে মহামান্য উন্নয়নের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়ায় অন্যরা। তাদের হাতে তীর-ধনুক ও বর্শা।

মাত্র ১৫ মিনিটের নাটকটি ব্রিটিশদের বিরুদ্ধে সিঁধু-কানুদের রুখে দাঁড়ানোর সেই ঐতিহাসিক স্মৃতি মনে করিয়ে দেয়।

ভূমিসূত্র রচনা ও নির্দেশনা দিয়েছেন  নগরনাটের সভাপতি অরূপ বাউল। একজন  সাঁওতাল ভূমিপুত্র চরিত্রে অভিনয় করেন নগরনাটের সাধারণ সম্পাদক উজ্জ্বল চক্রবর্তী। তাঁর অনবদ্য অভিনয় যেন গায়ে কাঁটা দিয়েছে। সব মিলিয়ে একটি অসাধারণ পরিবেশনা।