শিশু ধর্ষণের মামলায় সাইফুল ৭ দিনের রিমান্ডে - Women Words

শিশু ধর্ষণের মামলায় সাইফুল ৭ দিনের রিমান্ডে

দিনাজপুরে পাঁচ বছরের শিশুকে ধর্ষণের অভিযোগে করা মামলায় আসামি সাইফুল ইসলামের সাত দিনের রিমান্ড আবেদন মঞ্জুর করেছেন আদালত। দিনাজপুর আমলি আদালত-৫-এর বিচারক কৃষ্ণ কমল বৃহস্পতিবার এ আদেশ দেন।

এর আগে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা স্বপন কুমার চৌধুরী বেলা পৌনে তিনটায় সাইফুলকে আদালতে হাজির করেন এবং সাত দিনের রিমান্ড আবেদন করেন।

আবেদনের ওপর শুনানির সময় আসামির পক্ষে কোনো আইনজীবী ছিলেন না। তিনি নিজেই জামিন প্রার্থনা করেন। সরকারি কৌঁসুলি সলিমুল্লাহসহ কয়েকজন আইনজীবী এ সময় জামিন আবেদনের বিরোধিতা করেন।

প্রসঙ্গত, পার্বতীপুর উপজেলার সিঙ্গীমারী জমিরহাট গ্রামের ওই শিশু বাড়ির সামনে থেকে গত ১৮ অক্টোবর নিখোঁজ হয়। শিশুটিকে খুঁজে না পেয়ে ওইদিন রাতে পার্বতীপুর মডেল থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেন তার বাবা।

পরদিন ভোরে বাড়ির পাশে একটি হলুদ ক্ষেত থেকে মেয়েটিকে রক্তাক্ত অবস্থায় উদ্ধার করে পার্বতীপুর ল্যাম্প হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে অবস্থার অবনতি হলে পাঠানো হয় রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে। সেখানেও অবস্থার উন্নতি না হওয়ায় তাকে ঢাকায় পাঠানো হয়। 

শিশুটির বাবা গত ২০ অক্টোবর রাতে একই গ্রামের জহির উদ্দিনের ছেলে সাইফুল ইসলাম (৪২) ও আফজাল হোসেন কবিরাজকে (৪৮) আসামি করে পার্বতীপুর মডেল থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা করেছেন।

মামলার প্রধান আসামি সাইফুলকে ২৪ অক্টোবর রাতে দিনাজপুর শহর থেকে গ্রেপ্তার করেপুলিশ । অপর আসামি এখনও পলাতক। শিশুটি সাইফুলকে বড় জ্যাঠা বা বড় আব্বু বলে ডাকত বলে শিশুটির পরিবার দাবি করে।

শিশুটির মাথা, গলা, হাত ও পায়ে ধারালো অস্ত্রের আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। শরীরে ছিল কামড়ের দাগ। আর ঊরুতে সিগারেটের ছ্যাঁকা দেওয়ার ক্ষত।

শিশুটির চিকিৎসায় গঠিত মেডিকেল বোর্ড শিশুটিকে পর্যবেক্ষণ করেছে। শিশুটির প্রজনন অঙ্গে সংক্রমণ দেখা দিয়েছে। এই সংক্রমণ এখন পুরো শরীরে ছড়িয়ে পড়ার আশঙ্কা করা হচ্ছে।

সূত্র: প্রথম আলো