প্রেতাত্মা ভর করেছে সন্দেহে আড়াই বছরের কন্যা শিশুকে হত্যা - Women Words

প্রেতাত্মা ভর করেছে সন্দেহে আড়াই বছরের কন্যা শিশুকে হত্যা

প্রেতাত্মা ভর করেছে এই সন্দেহে আড়াই বছরের এক কন্যা শিশুকে মন্দিরের চাতালে মাথা ঠুকে দিয়ে হত্যা করেছেন এক ব্যক্তি। অভিযুক্ত যুবক পেশায় রিকশাচালক, নাম অমিত কুমার। এ ঘটনাটি ভারতের পশ্চিম দিল্লির রানহোলা এলাকার।  

পুলিশ জানিয়েছে, বাচ্চাটিকে গতকাল সোমবার সকালে বাড়ি থেকে অপহরণ করে ১০০ মিটার দূরে এক মন্দিরের মেঝেতে তার মাথা ঠুকে দেন অমিত। মারাত্মক আঘাত পায় মেয়েটি। নিখোঁজ মেয়ের সন্ধানে বেরিয়ে তাকে মন্দিরে রক্তাক্ত অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখেন বাড়ির লোকজন। মেয়েটিকে তারা  নিকটবর্তী হাসপাতালে নিয়ে যান। সেখানে নেওয়ার পর তাকে মৃত ঘোষণা করা হয়। এদিকে মন্দির থেকেই ধরা পড়েন অমিত। 

পুলিশ আরও জানায়, আটক অমিতকে জেরা করা হলেও তিনি  বিশেষ মুখ খোলেননি। তবে তার দাবি, সে ভূত-প্রেতদের দেখতে পায়। তাদের ভাষাও সে বুঝতে পারে। সে টের পেয়েছিল, বাচ্চাটিকে ভূতে ভর করেছে। তাই ভূত তাড়াতেই সে তার মাথা মন্দিরের চাতালে ঠুকে দেয়।

অমিতের এ ধরনের কথাবার্তা থেকে তার মানসিক ভারমাম্য নেই বলে ধারণা করছে পুলিশ। সে মেয়েটিকে যৌন নিগ্রহ করেছিল কিনা, জানতে অটোপসি রিপোর্টের অপেক্ষায় রয়েছে পুলিশ।
সূত্র-এবিপি