রাবির হলের নর্দমা থেকে ছাত্রের লাশ উদ্ধার - Women Words

রাবির হলের নর্দমা থেকে ছাত্রের লাশ উদ্ধার

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের নবাব আবদুল লতিফ হল প্রাঙ্গনের নর্দমা থেকে এক ছাত্রের লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। নিহতের নাম মোতালেব হোসেন লিপু(২১)। তিনি গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী ছিলেন।  

পুলিশ বলছে, তাঁর মাথার পেছনে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। এটি হত্যাকাণ্ড হতে পারে।

হলের ডাইনিংয়ের কর্মচারীরা কাজ করতে গিয়ে বৃহস্পতিবার সকাল আটটার দিকে পাশের নর্দমায় লাশটি দেখতে পান। পরে পুলিশে খবর দেওয়া হয়।

নিহত মোতালেবের বাড়ি ঝিনাইদহের হরিণাকুণ্ডে। তিনি আবদুল লতিফ হলের ২৫৩ নম্বর কক্ষে থাকতেন।

রাজশাহী মহানগর পুলিশের উপকমিশনার আমির জাফর বলেন, মাথার পেছনের আঘাত দেখে প্রাথমিকভাবে এটি হত্যাকাণ্ড বলে মনে হচ্ছে। ময়নাতদন্তের জন্য লাশ রাজশাহী মেডিকেল কলেজের মর্গে পাঠানো হয়েছে।

লতিফ হলের প্রাধ্যক্ষ অধ্যাপক বিপুল কুমার বিশ্বাস বলেন, হলের কর্মচারীরা সকালে নর্দমায় লাশ পড়ে থাকতে দেখে তাকে খবর দেন। পরে তিনি পুলিশকে জানালে তারা এসে লাশ নিয়ে যায়।

মোতালেবের রুমমেট রাজিবুল ইসলাম বলেন, লিপু কোনো রাজনৈতিক সংগঠনে জড়িত ছিলেন না।

“রাত ১২টার দিকে ও ঘুমানোর জন্য রুমে আসে। আমিও তখন শুয়ে পড়েছি। গভীর রাতে একবার দরজা খোলার শব্দ পেয়েছিলাম। কিন্তু খেয়াল করিনি। ”

রাজিব আরও জানান, লিপু প্রতিদিন সকালে ব্যায়াম করতে বের হতেন। কিন্তু যখন তার লাশ পাওয়া গেল, তখন গায়ে কোনো কাপড় ছিল না।

গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের ছাত্র সত্য সরকার জানান, লিপু বাড়ি থেকে ঘুরে এসে বুধবার হলে ফিরেছিলেন। রাত ৮টার দিকে তাদের দেখা হলে সামনের ইয়ার ফাইনাল পরীক্ষা নিয়ে তাদের মধ্যে কথাও হয়েছিল। তবে সে সময় অস্বাভাবিক কিছু তার চোখে পড়েনি।   

বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক মজিবুল হক আজাদ খান বলেন, “পুলিশ বিষয়টি তদন্ত করে দেখছে। আমরাও দেখছি। ময়নাতদন্তের পর লিপুর মৃত্যুর কারণ স্পষ্ট হবে।”

সূত্র: বিডিনিউজ২৪, প্রথম আলো