দেশে হামলার পরিকল্পনায় ছিলেন মালয়েশিয়াফেরত সেই ব্যবসায়ী - Women Words

দেশে হামলার পরিকল্পনায় ছিলেন মালয়েশিয়াফেরত সেই ব্যবসায়ী

সন্ত্রাসবাদে জড়িত সন্দেহে মালয়েশিয়ায় গ্রেপ্তারকৃত যে বাংলাদেশী ব্যবসায়ীকে ফেরত পাঠানো হয়েছে, তিনি দেশে সন্ত্রাসী হামলার পরিকল্পনা করছিলেন। মালয়েশিয়ার দ্য স্টার অনলাইনের এক প্রতিবেদনে আজ শুক্রবার এই তথ্য জানানো হয়।

আইএসসহ আন্তর্জাতিক জঙ্গি সংগঠনের সঙ্গে যুক্ত থাকার অভিযোগে বাংলাদেশসহ চারটি দেশের চারজন নাগরিককে গ্রেপ্তার করে মালয়েশিয়ার কর্তৃপক্ষ। তাঁদেরকে সম্প্রতি নিজ নিজ দেশে ফেরত পাঠানো হয়। বাকি তিনজন নেপাল, মরক্কো ও মালয়েশিয়ার নাগরিক বলে দেশটির পুলিশ জানিয়েছে।

মালয়েশিয়ার পুলিশ জানায়, গত ১৯ আগস্ট ৩৭ বছর বয়সী রেস্তোরাঁ ব্যবসায়ী বাংলাদেশিকে গ্রেপ্তার করা হয়। তাঁকে গত ২ সেপ্টেম্বর দেশে ফেরত পাঠানো হয়।

দ্য স্টার অনলাইন জানায়, ওই বাংলাদেশি মালয়েশিয়ার কুয়ালালামপুরে পর্যটনকেন্দ্র বুকিত বিনতাংয়ে রেস্তোরাঁ চালাতেন।  গুলশান হামলায় জড়িত সন্দেহভাজন জঙ্গি আন্দালিব আহমেদের সঙ্গে তাঁর সেখানে সাক্ষাৎ হয়েছিল।

মালয়েশিয়ার পুলিশ জানিয়েছে, ওই বাংলাদেশির বিরুদ্ধে একটি ‘আন্তর্জাতিক সন্ত্রাসী সংগঠনের ব্যবহারের জন্য অস্ত্র পাচারে’ জড়িত থাকার অভিযোগ রয়েছে। তার নামে ইন্টারপোলে রেড নোটিসও জারি হয়েছিল।

সূত্রের ভাষ্য, ওই বাংলাদেশি তাঁর দেশের আরও অনেকের সঙ্গে নিয়মিত বৈঠকে বসতেন। তিনি বাংলাদেশে হামলার পরিকল্পনা করছিলেন বলে কর্তৃপক্ষ মনে করছে। বাংলাদেশে একে-৪৭ রাইফেল চোরাচালানে ওই ব্যবসায়ী সম্পৃক্ত ছিলেন।

খবরে জঙ্গি আন্দালিব আহমেদের সম্পর্কে বলা হয়, মালয়েশিয়ায় মোনাশ ইউনিভার্সিটিতে পড়তেন তিনি। ২০১২ থেকে ২০১৫ সাল পর্যন্ত মালয়েশিয়ায় ছিলেন। পরে তুরস্কের ইস্তাম্বুলে চলে যান।