ভারতে গোমাংস খাওয়ার অপরাধে দুই বোনকে গণধর্ষণ - Women Words

ভারতে গোমাংস খাওয়ার অপরাধে দুই বোনকে গণধর্ষণ

ভারতে গোমাংস খাওয়ার অপরাধে দুই বোনকে গণধর্ষণ করা হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। বিবিসি অনলাইনের এক প্রতিবেদনে এ খবর প্রকাশ পেয়েছে।

২০ বছর বয়সী এক নারী অভিযোগ করেছেন, গোমাংস খাওয়ার অপরাধে তাকে এবং তার ১৪ বছর বয়সী বোনকে গণধর্ষণ করা হয়েছে।

ব্রিট্রিশ গণমাধ্যমকে এক সাক্ষাৎকারে তিনি জানান, যে চার ব্যক্তি তাদের ধর্ষণ করেছে, তারা সে সময় বলেছিল যে গরুর মাংস খাওয়ার জন্যই তাদের শ্লীলতাহানী করা হচ্ছে।

তবে গোমাংস খাওয়ার অভিযোগ অস্বীকার করেছেন এই দুই নারী ।

গত ২৪ আগস্ট দেশটির হরিয়ানা রাজ্যের মেওয়াটে একদল হিন্দু এক মুসলিম বাড়িতে হামলা চালিয়ে একজন পুরুষ ও একজন মহিলাকে পিটিয়ে হত্যা করে। সে সময় এই দুই নারীও নির্যাতনের শিকার হন। তবে সে সময় তাদের ধর্ষণের কথাটি জানাজানি হয়নি। যাদেরকে পিটিয়ে মারা হয়েছে, তারা সম্পর্কে নির্যাতিত ওই দুই বোনের চাচা-চাচি।

ঐ হামলায় জড়িত থাকার অভিযোগে সন্দেহভাজন স্থানীয় চার যুবককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। তবে হামলার সাথে গোরক্ষক সংগঠনের সদস্যরাই যে জড়িত রয়েছে এর পক্ষে কোন প্রমাণ তারা পায়নি। অভিযুক্তরা সবাই মদ্যপ ছিল বলে পুলিশ জানিয়েছে।

ভারতের রাজধানী দিল্লির থেকে প্রায় ১০০ কিলোমিটার দূরে বিজেপি শাসিত রাজ্য হরিয়ানায় গোমাংস খাওয়া বা বহন করা নিষিদ্ধ। আইন করে সেখানে গো-সেবা কমিশন আর গরু জবাই বা পাচার রোখার জন্য একটি বিশেষ পুলিশ দলও তৈরি হয়েছে।

মেওয়াট জেলাটি মুসলমান-প্রধান এলাকা। এখানকার জনসংখ্যার প্রায় ৭০% মুসলমান।