'বর্ণবাদী আচরণ জীবনের অংশ হয়ে দাড়িয়েছে' - Women Words

‘বর্ণবাদী আচরণ জীবনের অংশ হয়ে দাড়িয়েছে’

রান্নার প্রতিযোগিতা ‘গ্রেট ব্রিটিশ বেক অফ’ বিজয়ী নাদিয়া হুসেইন বলেছেন যে বর্ণবাদী আচরণের শিকার হওয়াটা তার জীবনের অংশ হয়ে দাঁড়িয়েছে – এবং “বছরের পর বছর” এমনটাই হয়ে আসছে।

তিনি বলেন ২০০১ সালের ১১ই সেপ্টেম্বরের পর “বড় কিছু ঘটনার” সংবাদ আসার প্রেক্ষিতে তাকে নানা নির্যাতনের শিকার হতে হয়েছে।

“আমার দিকে বিভিন্ন জিনিস ছুড়ে মারা হয়েছে, ধাক্কা দেয়া হয়েছে” বলেন বাংলাদেশী বংশোদ্ভূত ব্রিটিশ নাদিয়া হুসেইন।

বিবিসি রেডিও ফোরের সাথে এক সাক্ষাতকারে তিনি বলেন “আমার মনে হয় এগুলো আমার জীবনের অংশই হয়ে দাঁড়িয়েছে, আমি ধারণাই করি এমনটা হবে।”

৩১ বছর বয়সী নাদিয়া বলেন “মানুষজন আমাকে ধাক্কা দেবে, খারাপ কথা বলবে এমনটা আমি ধারণাই করি। কারণ এমনটাই হয়, এমনটাই হয়ে আসছে বছরের পর বছর।”

এসব আচরণের জবাবে তিনি প্রতিহিংসা দেখান না বলে জানান নাদিয়া।

“আমি মনে করি চুপ থাকার মধ্যে একটা মর্যাদা আছে, আমার মনে হয় নেতিবাচকতার প্রতিক্রিয়ায় আমি যদি নেতিবাচক আচরণ করি, তাহলে আমরা সমান হয়ে গেলাম।”

“আর আমি সমান হতে চাই না, কারণ কেউ যদি নেতিবাচক হয় তাহলে আমাকে তার চেয়ে ভাল হতে হবে” তিনি বলেন।

“আমার যেহেতু শিশুসন্তান আছে, আমি চাইনা যে যুক্তরাজ্যে থাকার বিষয়ে তাদের মধ্যে কোন নেতিবাচক মনোভাব থাক। তবে নেতিবাচক মানুষ আছে, যদিও তারা সংখ্যালঘু।”

তিনি যোগ করেন “আমি ভালবাসি যে আমি ব্রিটিশ এবং এখানে থাকতে আমি ভালবাসি, এটিই আমার বাড়ি এবং সবসময় তাই থাকবে”

গত অক্টোবরে বিবিসি ওয়ান টেলিভিশনের জনপ্রিয় বেকিং অনুষ্ঠানে বিজয়ী হন নাদিয়া হুসেইন। দেড় কোটি দর্শক ঐ অনুষ্ঠান দেখেছিলেন।

জানুয়ারি নাগাদ খ্যাতনামা একটি ব্রিটিশ পত্রিকা তাকে যুক্তরাজ্যের প্রভাবশালী ৫০০ ব্যক্তির তালিকায় অন্তর্ভুক্ত করে।

সৌজন্যে : বিবিসি বাংলা