সোমবার, ২২ অক্টোবর ২০১৮, ১২:১৭ অপরাহ্ন

হরিয়ানার ধর্ষণে মূল অভিযুক্ত গ্রেপ্তার, ২ জন পলাতক

হরিয়ানার ধর্ষণে মূল অভিযুক্ত গ্রেপ্তার, ২ জন পলাতক

অবশেষে ভারতের হরিয়ানা ধর্ষণকাণ্ডের মূল অভিযুক্ত নিশু ফোগটকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। বাকি দুই অভিযুক্ত মণীশ ও পঙ্কজ এখনও পলাতক।  

ওই ঘটনায় যুক্ত থাকার অভিযোগে দীন দয়াল ও সঞ্জীব নামে আরও দু’জনকে আগেই গ্রেপ্তার করেছে‌ পুলিশ। ‘দোষীদের ফাঁসি চাই’ জানিয়ে সরকার থেকে দেওয়া দু’লক্ষ টাকা ক্ষতিপূরণের চেক ফিরিয়ে দিয়েছেন নির্যাতিতার পরিবারের সদস্যরা।

বুধবার কোচিং সেন্টার থেকে পড়ে ফেরার সময়ে মহেন্দ্রগড়ের কানিনা বাস স্ট্যান্ড থেকে সিবিএসই’র বোর্ডের পরীক্ষায় প্রথম স্থান অর্জন করা এক ছাত্রীকে তুলে নিয়ে গিয়ে ধর্ষণ করে তাঁর গ্রামেরই তিন যুবক। মণীশ, নিশু ও পঙ্কজ নামে ওই তিন জনের খোঁজে হরিয়ানার বিভিন্ন প্রান্তে, সেই সঙ্গে রাজস্থান, দিল্লি ও অন্য রাজ্যেও হানা দিয়েছিল পুলিশের দল। মণীশ ও পঙ্কজ এখনও পলাতক। চাপের মুখে রেওয়াড়ীর এসপি রাজেশ দুগ্গলকে বদলি করে দেওয়া হয়েছে। নতুন এসপি হয়েছেন রাহুল শর্মা।

ঘটনার তদন্তে আট সদস্যের যে বিশেষ দল (সিট) গঠন করা হয়েছে। সিট প্রধান এসপি নাজনিন ভাসিন বলেন, ‘‘যে পরিত্যক্ত নলকূপটির কাছে নিয়ে গিয়ে তরুণীকে ধর্ষণ করা হয়েছিল, তার মালিক দীন দয়ালকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।’’

ধৃত সঞ্জীব পেশায় চিকিৎসক। পুলিশের দাবি, নিশু আগেই ধর্ষণের পরিকল্পনা করেছিল। তাই আগেই চিকিৎসক সঞ্জীবকে দলে টানে সে। ঘটনার পরে নির্যাতিতার প্রাথমিক চিকিৎসা করে সঞ্জীব। অন্তত একশো জনকে ইতিমধ্যেই জিজ্ঞাসাবাদ করেছে পুলিশ। তদন্তকারীরা জানিয়েছেন, দীন দয়াল টাকার বিনিময়ে নলকূপ লাগোয়া একটি পরিত্যক্ত ঘরের চাবি মণীশদের দিয়েছিল। সেখানেই ধর্ষণ করা হয় তরুণীকে।

সূত্র: আনন্দবাজার

আরও পড়ুন

হরিয়ানায় সংঘবদ্ধ ধর্ষণে জড়িত এক সেনা, ৩ অভিযুক্তের ছবি প্রকাশ

নিউজটি শেয়ার করুন







© All rights reserved © 2015 womenwords.com
পোর্টাল বাস্তবায়নে : বিডি আইটি ফ্যাক্টরী লিঃ