রাজকুমারী সালমা জর্ডানের প্রথম নারী পাইলট

নিউজটি শেয়ার করুন

মধ্যপ্রাচ্যের দেশ জর্ডানের প্রথম নারী পাইলট হিসেবে ইতিহাসে নাম লেখালেন রাজকুমারী সালমা বিনতে আবদুল্লাহ। জর্ডান সশস্ত্র বাহিনীতে পাইলট প্রশিক্ষণের তত্ত্বীয় এবং ব্যবহারিক পরীক্ষায় পাসের পর তিনি দেশটির প্রথম নারী পাইলট হিসেবে যোগদান করেছেন। আলজাজিরার এক প্রতিবেদনে এ খবর জানানো হয়েছে।

জানা গেছে, জর্ডান রাজপ্রাসাদের সঙ্গে দেশটির সরকারের সমন্বয় রক্ষাকারী রয়্যাল হাশিমি কোর্ট এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, ১৯ বছর বয়সী রাজকুমারী সালমা বিনতে আবদুল্লাহ তার পাইলট প্রশিক্ষণ শেষে কর্মস্থলে যোগ দিয়েছেন। আরাবিয়ান রয়্যাল এজেন্সির টুইটার পোস্টে সেই ছবিও পোস্ট করা হয়েছে।

রাজকুমারী সালমা ২০১৮ সালের নভেম্বরে রয়্যাল সামরিক অ্যাকাডেমি থেকে সংক্ষিপ্ত কমিশনড কোর্সে শেষে স্নাতক ডিগ্রি লাভ করেন। তাপরর তার বাবা বাদশাহ আবদুল্লাহকে নিয়ে রাজধানী আম্মানের হুসেনিয়া প্যালেসে গতকাল বুধবার তারা বিমান চালানোর অভিজ্ঞতার সনদসহ যোগদান করেন।

রাজুকমারী সালমা বিনতে আবদুল্লাহ’র পাইলট হিসেবে যোগদানের ওই অনুষ্ঠানে তার মা রানী রানিয়া, ভাই যুবরাজ হুসেইন উপস্থিত ছিলেন। এর আগে তার ভাই যুবরাজ হুসেইন জর্ডানের সশস্ত্র বাহিনীর প্রথম হয়েছিলেন। বোন সালমা পাইলট হওয়ার পর সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ইন্সটাগ্রামে সেই ছবি পোস্ট করেন তিনি।

যুবরাজ হুসেইন তার পোস্টে সবসময়ের মতো অসাধারণ ও কঠোর পরিশ্রমী হিসেবে বোন সালমাকে অভিহিত করে পাইলট হওয়ায় বোন সালমানে বিনতে আবদুল্লাহকে অভিনন্দিত করেন। তিনি বলেন এটা হলো আরও সাফল্য ও অর্জনের দিন।

তবে প্রিন্সেস সালমা প্রথম যুক্তরাজ্যভিত্তিক ওই সামরিক অ্যকাডেমি থেকে স্নাতক ডিগ্রি লাভ করেননি। তার ফুফু প্রিন্সেস আসিয়া বিনতে হুসেইন প্রথম আরব নারী হিসেবে ১৯৮৭ সালে ওই সামরিক অ্যাকাডেমি থেকে স্নাতক সম্পন্ন করেন। পরে তিনি জর্ডানের স্পেশাল ফোর্সে যোগ দেন। অপর ফুফু প্রিন্সেস ইমান স্নাতক হন ২০০৩ সালে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *