নারীর ঐশ্বর্য আর পুরুষের শ্রেষ্ঠত্বের ডাক

ফেরদৌসি বিকন ভাবছি আজ নারী দিবসে কি লিখবো? আমার নারীবাদ মানেতো আমি জনম জনম ধরে নারী হয়েই জন্মাতে চাই। আমার নারীজন্ম সার্থকতা পেয়েছে, ঐশ্বর্যময় হয়েছে আমার দেশের মহা পুরুষদের কাব্যে। আমি তাই জীবনভর অর্ধেক মানবী আর অর্ধেক পুরুষের (রবীন্দ্রনাথের) কল্পনা হয়েই থাকতে চাই। আমার কাছে প্রশ্ন এসেছে, "কাব্যিকতা আর বাস্তবতার মধ্যে কোন

‘নর দিল ক্ষুধা, নারী দিল সুধা…’

ফেরদৌসি বিকন নজরুল তাঁর ‘নারী’ কবিতায় ছন্দে ছন্দে নরনারীর মিলনে নারীর উষ্ণ, বর্ধিষ্ণু প্রেমের উদ্দীপ্ত, মোহনিয়া ভাবটি ব্যক্ত করেছিলেন এভাবে- নারীর বিরহে, নারীর মিলনে, নর পেল কবি-প্রাণ, যত কথা তার হইল কবিতা, শব্দ হইল গান। দিবসে দিয়াছে শক্তি সাহস, নিশীতে হ’য়েছে বধূ, পুরুষ এসেছে মরুতৃষা লয়ে, নারী যোগায়েছে মধু। নর দিল ক্ষুধা, নারী দিল সুধা, সুধায়