ভাইটিতো বড় অভিমানী

মুন্নী সাহা নাহ পেলাম না। পাবো ক্যামনে, খুঁজবো বলে তো রাখিনি। সেই নোটপ্যাডটা, ঘরে ওষুধের শিশির পাশে, টেলিফোনের তলায় যেটা অযত্নে থাকে সেটা। কখনো কখনো জরুরি তাড়াহুডোর সময় কিছু লিখতে, নাম্বার নিতে, মনে রাখতে জরুরি হয়ে পরা অযত্নের নোট প্যাডটা... কিন্তু সেখানেই যে একটা ভোতাঁ পেন্সিল দিয়ে লিখেছিলাম শাকিল ভাইয়ের ডিকটেশন! কানের

কাস্ত্রোর নামে কোনও রাস্তা নেই, কোনও মূর্তি নেই

সমাজতান্ত্রিক আন্দোলনের কিংবদন্তি নেতা ফিদেল কাস্ত্রোর মৃত্যু সংবাদ এখন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম জুড়ে আলোচিত হচ্ছে। পৃথিবীর তাবৎ শান্তিকামীরা ফেসবুক, টুইটারের মতো সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলোতে তাদের শ্রদ্ধা জানচ্ছেন। নিজেদের অনুভূতিও শেয়ার করছে। সেই তালিকায় আছেন নির্বাসিত লেখিকা তাসলিমা নাসরিনও। নিজের ফেসবুক পেজে কাস্ত্রোকে নিয়ে তার স্ট্যাটাস হুবহু তুলে ধরা হলো- ‘স্বপ্ন ছিল

প্রগতিশীল মানুষ কিন্তু যেখানেই অন্যায় ঘটুক প্রতিবাদ করে

তসলিমা নাসরিন বাংলাদেশের হিন্দুরা যেহেতু অত্যাচারিত, তাদের পক্ষে আমি দাঁড়িয়েছি, প্রচুর লিখেছি, এখনো লিখছি। শুধু হিন্দু নয়, অত্যাচারিত যে কোনো মানুষের পক্ষে আমি দাঁড়াই। সে মুসলমান হোক, হিন্দু হোক, খ্রিস্টান হোক, বৌদ্ধ হোক, ইহুদি হোক, নাস্তিক হোক। কিছু মুসলমান মৌলবাদি, আমরা জানি, শুধু মুসলমান অত্যাচারিত হলে কান্নাকাটি করে। অবশ্য সে মুসলমান

গালিবা নামের ‘পরী’টা সকল চেষ্টা ব্যর্থ করে চলে গেল!

দেব দুলাল গুহ আজ ক্রিকেটে বাংলাদেশের জয়ের আনন্দে সবাই যখন আনন্দিত, সাকিবের ছোট্ট মেয়েটি যখন ওর বাবার বিশেষ অর্জনের দিনটিতে বাসায় বসে টিভিতে বাবাকে দেখছে, আমার ক্রিকেটার বন্ধু মিঠু তখন ঢাকার স্কয়ার হাসপাতালে ওর নবজাতক মেয়ে গালিবার নিথর দেহটি বুকে জড়িয়ে কাঁদছে। ফরিদপুরে ক’দিন আগে এই মেয়েটিকেই জন্মের পর ‘মৃত’ বলে

দু’ঘণ্টা যেন দুই দিন…

ফাহিমা নিপা বিপদে পড়লে মানুষের বু্দ্ধি শুধু লোপ পায় না সেই সাথে অসংখ্য দুশ্চিন্তাও মাথায় ভর করে। কার সামনে কখন বিপদ এসে হাজির হয়, কেউ বলতে পারে না। যেমনটা আমার বেলায় ঘটে গেলো! রান্না ঘরে কাজ করছি, ছেলে ইহতিশাম আমাকে ডাকতে ডাকতে আমার কাছে এল। এসেই রান্না ঘরের দরজা বন্ধ করে দিল

রিশার ভাইয়েরা দাঁড়াক অপরাধীর বিরুদ্ধে …

ইশতিয়াক আহমেদ আমার যেদিন যুগান্তরে চাকরী হলো, সেদিন থেকে ঠিক করলাম, মিডিয়ায় চাকরী করলে আমাকে পাল্টাতে হবে। নরম হয়ে যেতে হবে। অনেক কিছু সম্পর্কে ঠান্ডা অবস্থানে যেতে হবে। তাই আমার আগের মতো চলাফেরা ধীরে ধীরে গুটিয়ে নিলাম। অথচ তার আগে আমি একটু অন্যরকমই ছিলাম। ২. আমার এক বন্ধুর বোনের ছবি তুলেছে কয়েকটা বখাটে

অবশেষে বাংলাদেশে আসছে পেপাল!

আউটসোর্সিং এর মাধ্যমে অর্জিত অর্থ বিনা বাঁধায় নিজের ব্যাংক একাউন্টে নিয়ে আসার সহজতম সার্ভিস ‘পেপাল’ অবশেষে বাংলাদেশে তাদের কার্যক্রম চালু করতে যাচ্ছে। এর আগে অর্থমন্ত্রীর প্রতিশ্রুতিসহ নানা পদক্ষেপ নেওয়ার পরও ফ্রিল্যান্সারদের দীর্ঘদিনের দাবীটি পূরণ হয়নি। এবার সেটা সত্যি চালু হচ্ছে বলে নিজের ফেসবুক পেজে জানিয়েছেন আইসিটি মন্ত্রণালয়ের যুগ্ম সচিব মাহবুব

যেমন ছিলেন ইশরাত আখন্দ

ইশরাত আখন্দ এর মর্মান্তিক মৃত্যুর পর তার বন্ধু নাদিয়া ইসলাম ফেসবুকে তাঁকে নিয়ে লিখেছেন দীর্ঘ পোস্ট। সেখানে ইশরাতের সাথে তাঁর প্রথম পরিচয় থেকে শুরু করে বন্ধু হয়ে ওঠার বিবরণ আছে। তাতে আমরা দেখতে পাই বন্ধু হিসেবে, দেশপ্রেমী নাগরিক হিসেবে, শিল্পবোদ্ধা হিসেবে, সর্বোপরি মানুষ হিসেবে ইশরাত কেমন ছিলেন তার একটা স্পষ্ট

কাউকে শুরু করতে হয়, স্ল্যাট আর নষ্টা হয়েই!

শামীমা মিতু আমি আমার স্কুলে পরিচিত ছিলাম স্ল্যাট হিসেবে! আমার আগে মেয়েরা স্কুলের হয়ে ব্যাডমিন্টন খেলতো সালোয়ার কামিজ পরে ওড়নায় সেপটিপিন লাগিয়ে গিট্টু দিয়ে। আমি খেলা শুরু করেছিলাম ট্রাউজার্স আর টিশার্ট পরে। তাই লোকে বলতো, আমি বুক উচায় দেখিয়ে বেড়ায়! এখন সেই স্কুলের মেয়েরা টিশার্ট ট্রাউজার্স, স্পোর্টস ক্লথ পরেই খেলায় অংশ

নারীবাদ অনেক সাধনার ব্যাপার

ফাহমি ইলা ইনবক্সে একজন স্বঘোষিত প্রগতিশীলের সাথে কথা বলছিলাম। কথার এক পর্যায়ে তিনি বললেন- 'তোমাদেরতো কিছু বলতেই ভয় লাগে! তোমরাতো আবার নারীভাদি।‘ শব্দটা ছিলো কটাক্ষসূচক ব্যঙ্গ উচ্চারণ ‘নারীভাদি’। এ নিয়ে সেই মানুষের সাথে বিস্তর আলোচনা হয়েছিলো। আমি নিজেকে নারীবাদী বলতে পারি না। আই রিপিট, ‘পারি না’। কারন নারীবাদ অনেক সাধনার ব্যাপার।