You are here
নীড়পাতা > সাম্প্রতিক > ৮৪ বছরের রিভলবার দাদি

৮৪ বছরের রিভলবার দাদি

চন্দ্রো তোমরের বর্তমান বয়স ৮৪ বছর। ৬ সন্তান ও ১৫ জন নাতিপুতি নিয়ে বেশ সুখের সংসার তাঁর। ভারতের উত্তর প্রদেশের বাগপাত জেলার জোহরি গ্রামের বাসিন্দা চন্দ্রোর বয়স যখন ৬৫, নাতনির বায়না রাখতে একদিন‌ জোবরি রাইফেল ক্লাব এ যান তার সঙ্গে। নাতনির ইচ্ছে রাইফেল চালানো শেখা। কিন্তু সেখানে গিয়ে তিনি একটি পিস্তল তুলে নিজে থেকেই টার্গেট প্র্যাকটিস করতে শুরু করেন। তাঁর দক্ষতায় মুগ্ধ হয়ে যান সেখানে উপস্থিত সকলে।

তারপর আর ঘুরে তাকাননি তিনি, এক সর্বভারতীয় দৈনিককে জানিয়েছেন চন্দ্রো তোমর। পিস্তলই যেন তাঁর কাছে সব কিছু হয়ে গেল সেই মুহূর্ত থেকে। বয়স কখনোই কোনো কাজে বাধা হতে পারে না, বলে জানান চন্দ্রোদেবী। এযাবৎ ভারতের নানা জায়গায় গিয়ে ২৫টি চ্যাম্পিয়নশিপ জিতে এসেছেন চন্দ্রো তোমর। এবং সে কারণেই তিনি শুটার দাদি বা রিভলবার দাদি নামেও পরিচিত।

চন্দ্রোদেবীর প্রভাব পড়েছে আশপাশের বহু মহিলার ওপরও। বর্তমানে প্রায় ২৫ জন মহিলা রাইফেল ক্লাবে প্রশিক্ষণ নিচ্ছেন বলে জানা গিয়েছে। তাঁদের মধ্যে রয়েছেন ৮০ বছরের প্রকাশি তোমর। তিনি সম্পর্কে চন্দ্রো তোমরের ননদ।

প্রসঙ্গত, ২০১০ সালে চন্দ্রো তোমরের বড় মেয়ে সীমা তোমর রাইফেল অ্যান্ড পিস্তল ওয়ার্ল্ড কাপ এর প্রথম মহিলা বিজয়ী হন। দাদির নাতনি, নীতু সোলাঙ্কিও বেশ কিছু আন্তর্জাতিক শুটিং প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করেছেন।

 

Similar Articles

Leave a Reply