You are here
নীড়পাতা > প্রতিবেদন > হুমকি উপেক্ষা করে কাবুলে কনসার্ট করলেন আরিয়ানা

হুমকি উপেক্ষা করে কাবুলে কনসার্ট করলেন আরিয়ানা

নানা ধরনের হুমকি ও হামলা উপেক্ষা করে কাবুলে কনসার্ট করেছেন আফগানিস্তানের ‘পপ তারকা’ আরিয়ানা সাঈদ। শনিবারে অনুষ্ঠিত এই কনসার্টে অংশ নেন শত শত তরুণ ও তরুণী।

বিবিসির প্রতিবেদনে জানানো হয়, আফগানিস্তানের স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে আয়োজিত এই কনসার্টে নেয়া হয় ব্যাপক নিরাপত্তা ব্যবস্থা।

তবে সেখানকার ধর্মীয় নেতারা বলছেন,এই কনসার্ট আফগান শিল্পসংস্কৃতির বিরোধী। তবে সাঈদ এই কনসার্ট করার বিষয়ে দৃঢ়প্রতিজ্ঞ ছিলেন।

ভক্তদের কাছে আরিয়ানা আফগানিস্তানের ‘কিম কারদাশিয়ান’ হিসেবে পরিচিত। ঐতিহ্যবাহী লোকগানসহ বেশ কয়েকটি ভাষায় গান করতে পারেন আফগান এই পপ তারকা।

আরিয়ানা সাঈদ নিজের পোশাক আর গানের জন্য বেশ কয়েকবার মৃত্যুর হুমকিও পেয়েছেন।

জঙ্গিবাদ ও সন্ত্রাসবাদের কারণে কাবুলে এ ধরনের অনুষ্ঠান আয়োজন দেখা যায় না।

আফগানিস্তানের স্বাধীনতা দিবসে এই কনসার্টটি হবার কথা ছিল কাবুলের গাজি স্টেডিয়ামে। তিন হাজার টিকেটও বিক্রি হয়ে গিয়েছিল। কিন্তু কনসার্ট আয়োজন নিয়ে নানা হামলার হুমকির পর কর্তৃপক্ষ অনুষ্ঠানস্থলের নিরাপত্তার নিশ্চয়তা দিতে পারবে না বলে জানিয়ে দেয়।

হামলার হুমকি এবং কর্তৃপক্ষের পিছিয়ে যাওয়ার পরও মনোবল হারাননি আরিয়ানা। তিনি ভিন্ন ভেন্যুতে অনুষ্ঠান আয়োজনের সিদ্ধান্ত নেন।শেষ পর্যন্ত শনিবার কড়া নিরাপত্তা ব্যবস্থায় ইন্টারকন্টিনেন্টাল হোটেলে অনুষ্ঠিত ওই কনসার্ট দেখতে যান কয়েকশো তরুণ-তরুণী।

কনসার্টের আগে বিবিসিকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে আরিয়ানা সাঈদ বলেন, ‘আফগানিস্তানে এমন কিছু মানুষ আছে যারা সঙ্গীতবিরোধী, কোনো উৎসব উদযাপন বিরোধী। এমনকি তারা নতুন বছর, ঈদ এবং সব ধরনের আনন্দ অনুষ্ঠানের বিরোধিতা করে।’

‘আমার আজ মনে হয়, এর বিরুদ্ধে লড়াইয়ের জন্য আমাদের সবার এক হওয়া প্রয়োজন। এখনই রুখে দাঁড়ানোর সময়’ বলেন তিনি।

 

Similar Articles

Leave a Reply