You are here
নীড়পাতা > সংবাদ > ক্যাম্পাস > সিলেট উইমেন্স মেডিকেল কলেজে ১৩তম ব্যাচের নবীনবরণ

সিলেট উইমেন্স মেডিকেল কলেজে ১৩তম ব্যাচের নবীনবরণ

Your ads will be inserted here by

Easy Plugin for AdSense.

Please go to the plugin admin page to
Paste your ad code OR
Suppress this ad slot.

মো. আব্দুল বাছিত

শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের(শাবিপ্রবি)উপাচার্য প্রফেসর ফরিদ উদ্দিন আহমদ বলেছেন, শিক্ষার্থীদেরকে ভালো ডাক্তার হওয়ার পাশাপাশি ভালো মানুষ হিসেবে গড়ে উঠতে হবে। বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সাথে তাল মিলিয়ে আধুনিক বিশে^র শ্রেষ্ঠ মানুষ হিসেবে গড়ে তুলতে প্রচেষ্টা চালাতে হবে।

তিনি আরও বলেন, সিলেট উইমেন্স মেডিকেল কলেজ সেই লক্ষ্যেই কাজ করে যাচ্ছে। শিক্ষকদের আন্তরিকতা এবং ভালোবাসার সাথে পাঠদানকে ভালোভাবে রপ্ত করতে পারলেই তোমরা সফল হবে।

সিলেট উইমেন্স মেডিকেল কলেজের ১৩তম ব্যাচের নবীনবরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর ডা. রেজাউল করীমের সভাপতিত্বে গতকাল মঙ্গলবার কলেজের গ্যালারী-২-এ অনুষ্ঠিত অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন সিলেট এম এ জি ওসমানী মেডিকেল কলেজের অধ্যক্ষ ও শাবিপ্রবির স্কুল অব মেডিসিন ফ্যাকাল্টির ডীন প্রফেসর ডা. মোর্শেদ আহমদ চৌধুরী, সম্মানিত অতিথির বক্তব্য রাখেন হলি সিলেট হোল্ডিং লিমিটেডের সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান প্রফেসর ডা. এম এ মতিন, ভাইস চেয়ারম্যান ফকরুল ইসলাম, ম্যানেজিং ডিরেক্টর ডা. শাহ আব্দুল আহাদ, সিলেট উইমেন্স মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পরিচালক লে. কর্নেল (অব.) ডা. সৈয়দ মো. আবতহী।

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে শাবিপ্রবির স্কুল অব মেডিসিন ফ্যাকাল্টির ডীন প্রফেসর ডা. মোর্শেদ আহমদ চৌধুরী বলেন, প্রতিটি পিতামাতারই স্বপ্ন থাকে তাদের ছেলে মেয়েকে ডাক্তার বা ইঞ্জিনিয়ার বানাবে। এ ক্ষেত্রে তোমরা ভাগ্যবান। তোমাদের পিতামাতার স্বপ্নকে পরিপূর্ণ ভাবে বাস্তবায়ন করতে অবশ্যই পড়ালেখায় মনোযোগী হতে হবে। শুধু এমবিবিএস পাশ নয়, এর পরে মেডিকেল সায়েন্সে উচ্চ শিক্ষা অর্জনের জন্য তোমাদেরকে স্বপ্ন দেখতে হবে।

কলেজের পেডিয়াট্রিকস বিভাগের এসিস্ট্যান্ট রেজিস্ট্রার অচিরা ভট্টাচার্যের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন হলি সিলেট হোল্ডিং লিমিটেডের স্পন্সর ডিরেক্টর ডা. সানওয়ারুল ইসলাম, কলেজের বায়োকেমিস্ট্রি বিভাগের বিভাগীয় প্রধান অধ্যাপক ডা. সখিনা খাতুন, মেডিসিন বিভাগের অধ্যাপক ডা. ইসমাঈল পাটোয়ারী, ফিজিওলোজী বিভাগের বিভাগীয় প্রধান প্রফেসর ডা. মো. মাসুদুল আলম, এনাটমি বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক মোহাম্মদ আল মোহাইমিন। অনুষ্ঠানে অভিভাবকদের পক্ষ থেকে বক্তব্য রাখেন মৌলভীবাজার সরকারি কলেজের পদার্থবিজ্ঞান বিভাগের সাবেক শিক্ষক অধ্যাপক সৈয়দ মুজিবুর রহমান, ভারতের কেন্দ্রীয় সরকারের অডিট বোর্ডের সদস্য নজরুল ইসলাম লস্কর, নবীন শিক্ষার্থীদের পক্ষ থেকে বক্তব্য রাখেন নিশাত তাসনীম চৌধুরী এবং হুমায়রা ইসলাম বারভ্ইূয়া।

কলেজের একাডেমিক কো-অর্ডিনেটর প্রফেসর ডা. মৃগেন কুমার দাশ চৌধুরীর স্বাগত বক্তব্যের মাধ্যমে শুরু হওয়া অনুষ্ঠানে কলেজের সার্বিক পরিচিতি তুলে ধরেন ওপথালমোলজী বিভাগের প্রফেসর ডা. আব্দুস সালাম। অনুষ্ঠানের শেষে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন কলেজের উপাধ্যক্ষ প্রফেসর ডা. ফজলুর রহীম কায়সার। শুরুতে পবিত্র কোরআন থেকে তেলাওয়াত করেন মাওলানা জামাল আহমদ। এছাড়া অনুষ্ঠানে নবীন শিক্ষার্থীদেরকে ফুলের তোড়া দিয়ে বরণ করা হয় এবং প্রত্যেকেই নিজেদের পরিচয় তুলে ধরেন।

 

Similar Articles

Leave a Reply