You are here
নীড়পাতা > প্রতিবেদন > মোবাইলে ভিডিও দেখিয়ে ৩ শিশুকে ধর্ষণের ঘটনায় গ্রেপ্তার ১

মোবাইলে ভিডিও দেখিয়ে ৩ শিশুকে ধর্ষণের ঘটনায় গ্রেপ্তার ১

বিভিন্ন ধরনের প্রলোভন দেখিয়ে তিন শিশুকে একাধিকবার ধর্ষণের ঘটনায় বাদল (২৮) নামের একজনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। রোববার সকালে নারায়ণগঞ্জ বন্দর উপজেলার দেউলি চৌরাপাড়া এলাকা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়।

পরে তিনজনের পক্ষে এক শিশুর মা বাদী হয়ে বন্দর থানায় ধর্ষণের মামলা করেন। বাদল বন্দর উপজেলা দেউলি চৌরাপাড়া এলাকার মৃত আব্দুল খালেকের ছেলে।

মামলা সূত্রে জানা যায়, বন্দর উপজেলার দেউলি চৌরাপাড়া এলাকার একটি পরিবারের স্বামী-স্ত্রী গার্মেন্টে কাজ করেন। তাদের ছয় বছরের এক শিশুকন্যা রয়েছে। তার প্রতিবেশী দুই পরিবারের ৮ ও ৬ বছরের দুটি কন্যাসন্তান রয়েছে। তাদের বাবা-মাও কর্মজীবী।

তিন পরিবারের সবাই কর্মস্থলে থাকার সুযোগে প্রতিবেশী লম্পট বাদল গত ৮ আগস্ট থেকে ৯ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত পর্যায়ক্রমে তিন শিশুকে বিভিন্ন ধরনের প্রলোভন ও তার মোবাইলের ভিডিও দেখিয়ে ধর্ষণ করে।

গত এক মাস ধরে তিন পরিবারের তিন শিশুকে ধর্ষণ করলেও পরিবারের কেউ বিষয়টি টের পায়নি। গত ৯ সেপ্টেম্বর শনিবার ধর্ষক বাদল এক শিশুকে ধর্ষণ করার সময় চিৎকার করলে শিশুর মা ছুটে আসলে বাদল পালিয়ে যায়।

এ সময় লম্পট বাদল পালিয়ে যাওয়ার পর শিশুর বাবা-মা এলাকার লোকজনকে বিষয়টি নিয়ে আলোচনা করলে তিন শিশুকে ধর্ষণের ঘটনার তথ্য বেরিয়ে আসে। পরে তিন শিশুর পক্ষে এক শিশুর মা বাদী হয়ে মামলা করার পর পুলিশ লম্পট বাদলকে গ্রেপ্তার করে।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বন্দর থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবুল কালাম বলেন, তিন শিশুকে ধর্ষণের ঘটনায় তিনজনের পক্ষে এক শিশুর মা বাদী হয়ে মামলা করেছেন। মামলার পর ধর্ষক বাদলকে গ্রেপ্তার করা হয়। তাকে পাঁচদিনের রিমান্ড আবেদন করে আদালতে পাঠানো হয়েছে বলেও জানান ওসি।

সূত্র: জাগোনিউজ২৪

 

Similar Articles

Leave a Reply