You are here
নীড়পাতা > সংবাদ > বাংলাদেশ > বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইটের নির্মাণ কাজ‌ ৫০ শতাংশ শেষ হয়েছে: তারানা হালিম

বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইটের নির্মাণ কাজ‌ ৫০ শতাংশ শেষ হয়েছে: তারানা হালিম

Your ads will be inserted here by

Easy Plugin for AdSense.

Please go to the plugin admin page to
Paste your ad code OR
Suppress this ad slot.

বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট নির্মাণের কাজ‌ ৫০ শতাংশ সম্পন্ন হয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন ডাক ও টেলি‌যোগাযোগ প্রতিমন্ত্রী অ্যাডভোকেট তারানা হালিম।

তিনি জানান, ২০১৭ সালের ১৬ ডিসেম্বর মহান বিজয় দিবসে বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট চ্যানেল ১ উৎক্ষেপণ করা হবে। শুক্রবার দুপুরে রাজধানীর গুলশানে বিটিসিএল ভবনে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ কথা বলেন।

তারানা হালিম বলেন, “বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট নির্মাণ প্রকল্পটি সরকারের অগ্রাধিকার প্রকল্প। থ্যালেস অ্যালেনিয়া ফ্রান্স এর ফ্যাসিলিটিতে ‘বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট ১’ এর ইঞ্জিনিয়ারিং কাজ ৮৩ শতাংশ, অ্যান্টেনা তৈরি ৫৬ শতাংশ এবং কমিউনিকেশন ও সার্ভিস মডিউল তৈরির কাজ ৬৫ শতাংশ শেষ হয়েছে।”

তিনি বলেন, ”সার্বিকভাবে বলতে পারি ‘বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট ১’ এর নির্মাণ কাজ গড়ে ৫০ শতাংশ শেষ হয়েছে। বাকি কাজ দ্রুত সময়ের মধ্যে তথা নির্ধারিত সময়ে শেষ হবে এবং যথাসময়ই এটির উৎক্ষেপণ হবে আশা করি।”

তিনি জানান, বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট ১ উৎক্ষেপণের পর সেটি নিয়ন্ত্রণ কাজে বিটিসিএল স্টাফ কলেজ, গাজীপুরে প্রাইমারি এবং বেতবুনিয়া ও রাঙামাটিতে সেকেন্ডারি গ্রাউন্ড স্টেশন স্থাপনের জন্য চূড়ান্ত স্থাপত্য ও কাঠামো নকশা অনুযায়ী দুটি গ্রাউন্ড স্টেশনের নির্মাণ কাজ চলমান রয়েছে

“গ্রাউন্ড স্টেশনের আর্থ ফিলিং, বাউন্ডারি ওয়াল এর কাজ শেষ পর্যায়ে রয়েছে এবং মূল ভবনের নিচতলার কাজও প্রায় শেষ। থ্যালেস ইতিমধ্যে বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট ১ এর গ্রাউন্ড স্টেশনের জন্য যন্ত্রপাতি ক্রয়ের কাজ সম্পন্ন করেছে। চলতি বছরের নভেম্বরের মধ্যে গ্রাউন্ড স্টেশনের অ্যান্টেনা যন্ত্রাংশ আমদানি প্রক্রিয়া শুরু হবে।”

সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট ১ নির্মাণে থ্যালেস এর সঙ্গে মোট ১৯৫১ কোটি ৭৫ লাখ টাকা চুক্তি মূল্যের মধ্যে ৬৯৭ কোটি ৪৬ লাখ টাকা পরিশোধ করা হয়েছে। পরিশোধ করা এ টাকার মধ্যে ৩৩১ কোটি ২৮ লাখ টাকা সোনালী ব্যাংক থেকে অন্তবর্তীকালীন ঋণ নেওয়া হয়েছে। বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট সিস্টেমে অর্থায়নের জন্য ইতিমধ্যে এইচএসবিসি এর সঙ্গে করা ১৫৭ মিলিয়ন ইউরো ঋণচুক্তির অর্থ থেকে মেটানো হবে।

সূত্র: কালের কন্ঠ

 

Similar Articles

Leave a Reply