You are here
নীড়পাতা > সংবাদ > আন্তর্জাতিক > পাকিস্তানে হাসপাতালে বোমা হামলায় নিহত ৪২

পাকিস্তানে হাসপাতালে বোমা হামলায় নিহত ৪২

পাকিস্তানের বেলুচিস্তানের কোয়েটা শহরের একটি হাসপাতালে বোমা হামলায় ৪২ জন নিহত হয়েছেন। এতে আহত হয়েছেন বহু লোকজন। বিবিসির খবর থেকে এ তথ্য জানা যায়।

পুলিশ জানায়, সোমবার সকালে হাসপাতালটির জরুরী বিভাগের মূল ফটকে এই হামলাটি হয়। সেখানে দেশটির খ্যাতনামা আইনজীবী বেলুচিস্তান বার অ্যাসোসিয়েশনের সাবেক প্রেসিডেন্ট বিলাল আনোয়ার কাসির মৃতদেহ রাখা ছিল। তাকে সোমবারই গুলি করে হত্যা করা হয়েছে।

হতাহতদের মধ্যে রয়েছেন আইনজীবী ও সাংবাদিকরাও। শোকাহতরা সেখানে জড়ো হওয়ার সময় ওই বিস্ফোরণ ঘটে বলে বেলুচিস্তানের স্বরাষ্ট্র সচিব আকবর হারিফালকে উদ্ধৃত করে খবরে বলা হয়।

হামলায় যারা নিহত হয়েছেন তাদের মধ্যে প্রাদেশিক বারের সাবেক সভাপতি বাজ মুহাম্মদ কাকার এবং আজ টিভির ক্যামেরাম্যান শাহজাদ খান রয়েছেন।

হামলার দায় তাৎক্ষণিকভাবে কেউ দায় স্বীকার করেনি। একজন আত্মঘাতী হামলাকারী এই বোমাটির বিস্ফোরণ ঘটিয়েছে বলে মনে করছে পুলিশ। বিস্ফোরণের পর সেখান থেকে গুলির শব্দও পাওয়া গেছে।

ঘটনাস্থলে উপস্থিত ফরিদুল্লাহ নামে এক সাংবাদিক রয়টার্সকে বলেন, বোমাটি  বিস্ফোরিত হওয়ার সময় ৫০ জনের বেশি মানুষ কাসির লাশ নিয়ে হাসপাতালের জরুরি বিভাগে ঢুকছিলেন।

এর আগে দেশটির বেসরকারি জিও টিভির খবর থেকে জানা যায়, বিলাল আনোয়ার কাসিকে কোয়েটার আদালত ভবনে যাওয়ার পথে গুলি করে হত্যা করা হয়।

সম্প্রতি কোয়েটাতে বেশ কয়েকটি পরিকল্পিত হত্যাকান্ডের ঘটনা ঘটেছে। যেগুলোকে বিচ্ছিন্নতাবাদী কর্মকাণ্ড ও সাম্প্রদায়িক অসহিষ্ণুতা সৃষ্টির উদ্দেশ্যে পরিচালিত বলে মনে করা হয়। এই হত্যাকাণ্ডগুলোতে নিহতদের মধ্যে কয়েকজন আইনজীবীও ছিলেন।

কাসি এসব হত্যার নিন্দা জানিয়েছিলেন। স্থানীয় গণমাধ্যমের সংবাদে প্রকাশ পায়, তিনি এসব হত্যাকাণ্ডের প্রতিবাদে দুদিনের আদালত বর্জন কর্মসূচীর ডাক দিয়েছিলেন।

পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরিফ এই হামলার নিন্দা জানিয়ে বলেন, “কাউকেই ওই অঞ্চলের শান্তি বিঘ্নিত করতে দেওয়া হবে না।

তিনি বলেন,বেলুচিস্তানের জনগণ ও আইনশৃঙ্খলা বাহিনী দেশের জন্য অনেক আত্মত্যাগ করেছে।

 

 

 

Similar Articles

Leave a Reply