You are here
নীড়পাতা > প্রতিবেদন > পাউলির বউভাত

পাউলির বউভাত

অভিনেত্রী পাওলি দাম এর বিয়ে হয়েছে ৪ ডিসেম্বর। আর গতকাল শুক্রবার ভারতের আসামের রাজধানী গুয়াহাটির শ্বশুরবাড়িতে পাওলির বউভাত অনুষ্ঠান আয়োজন করা হয়। খবর আনন্দবাজার পত্রিকার।

বিয়ের মতো বউভাত অনুষ্ঠানও ছিল বাঙালি ঘরানায়, সনাতনী হিন্দু শাস্ত্রমতে।  এদিন পাওলি দামের হাতে ভাত-কাপড়-শাড়ির থালা তুলে দেন তাঁর স্বামী অর্জুন দেব। আর বললেন, ‘আজ থেকে সারা জীবনের জন্য তোমার ভাত-কাপড়ের দায়িত্ব নিলাম।’

পাওলির স্বামী অর্জুন গুয়াহাটির বাসিন্দা। পেশায় ব্যবসায়ী অর্জুনদের বাড়িতেই  দুপুরের দিকে বউভাতের আয়োজন করা হয়। লাল শাড়ি, সিঁদুরের টিপ, শাঁখা-পলা, সোনার গয়নায় সেজেছিলেন পাওলি। বাঙালি রীতি মেনেই দুপুরে হয়েছে অনুষ্ঠান।

এ দিনের অনুষ্ঠানে হাজির ছিলেন দুই পরিবারের ঘনিষ্ঠ সদস্যরা। শুরু থেকে শেষ, বাঙালিয়ানাই ছিল এই বিয়ের আয়োজন।

আগামীকাল ১০ ডিসেম্বর গুয়াহাটির পাঁচতারা হোটেল তাজ ভিভান্টায়  হবে গ্র্যান্ড রিসেপশন। এই অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকবেন দুই পরিবারের আত্মীয়স্বজনসহ আসামের চলচ্চিত্র ও সংস্কৃতি অঙ্গনের অনেকেই।ওই দিনের জন্য পাওলি বেছে রেখেছেন লাল ও সোনালি রঙের পৈঠানি। আর অর্জুন পরবেন রোহিতের ডিজাইন করা শেরওয়ানি। পাওলির জন্য হানিমুনের গন্তব্য অর্জুনের পক্ষ থেকে বিগ সারপ্রাইজ।

দীর্ঘদিনের বন্ধু অর্জুন দেবের সঙ্গে গত সোমবার সন্ধ্যায় সাত পাকে বাঁধা পড়েন পাউলি। কলকাতার হোটেল তাজ বেঙ্গলে এই বিয়ের আনুষ্ঠানিকতার আয়োজন করা হয়।  বিয়ের আসরে বসার আগে পাওলি আর অর্জুন সেরে নেন বিয়ের নিবন্ধন। বিয়ের পর ৬ ডিসেম্বর স্বামীর সঙ্গে পাওলি যান গুয়াহাটিতে।

 

Similar Articles

Leave a Reply