You are here
নীড়পাতা > সংবাদ > আন্তর্জাতিক > পর্ন ছবি দেখতে গিয়ে ধরা খেলেন মন্ত্রী

পর্ন ছবি দেখতে গিয়ে ধরা খেলেন মন্ত্রী

ওড়িশার বিধানসভার ভেতরে বসে পর্ন দেখে ২০১৫ সালে কেলেঙ্কারি বাঁধিয়েছিলেন কংগ্রেস বিধায়ক নবকিশোর দাস। এবার কর্নাটকের শিক্ষামন্ত্রী তানবির সাইত এই তালিকায় নাম লেখালেন। টিপু জয়ন্তীর অনুষ্ঠানে গিয়ে মঞ্চে বসেই পর্ন ছবি দেখতে দেখতে ধরা পড়ে গেলেন তিনি ক্যামেরায়। কর্নাটকের কংগ্রেস সরকারকে বেশ অস্বস্তিতেই ফেলে দিলেন রাজ্যের শিক্ষা ও সংখ্যালঘু বিষয়ক মন্ত্রী তানবির।

কর্নাটকের রায়চূড়ে বৃহস্পতিবার টিপু জয়ন্তীর একটি অনুষ্ঠানে গিয়েছিলেন তিনি। সেই অনুষ্ঠান মঞ্চে বসে মন্ত্রীর নিজের মোবাইলে অশ্লীল ভিডিও দেখার ছবি স্থানীয় একটি সংবাদ মাধ্যমে দেখানো হয়। তার পরেই বিষয়টি নিয়ে শুরু হয়ে যায় হইচই।

অভিযুক্ত মন্ত্রীর বিরুদ্ধে নেমে গেছে বিরোধী শিবিরও। আগে যে বিজেপি’র মন্ত্রীরা এই পর্ন দেখতে গিয়েই ইস্তফা দিতে বাধ্য হয়েছেন, তাঁরাই এখন কংগ্রেসের বিরুদ্ধে পর্ন ইস্যুতে সুর চড়াচ্ছেন। যদিও তানবির সাইত পুরো ঘটনা অস্বীকার করেছেন।

তাঁর দাবি, রাজ্যের অন্যান্য প্রান্তে টিপু জয়ন্তীর অনুষ্ঠান কেমন চলছে তা তিনি নিজের মোবাইলে দেখছিলেন। সেই সময়ে কেউ হোয়াটসঅ্যাপে তাঁকে ওই ভিডিওগুলি পাঠায়।

তানবীর আরও দাবি করেন, অনুষ্ঠানস্থলে তাঁদের দু’জনকে ঘিরে একাধিক টিভি ক্যামেরা ছিল। সেখানে বসে অশ্লীল ভিডিও দেখলে সেই ছবি যে সহজেই ক্যামেরায় ধরা পড়বে, তা জেনেও কেউ এমন বোকার মতো কাজ করবে না। যদিও, এই সমস্ত যুক্তি মানতে নারাজ বিজেপি। তারা অভিযুক্ত মন্ত্রীর ইস্তফা দাবি করেছে।

কর্নাটকের মুখ্যমন্ত্রী সিদ্দারামাইয়া জানিয়েছেন, গোটা ঘটনার রিপোর্ট তিনি চেয়ে পাঠিয়েছেন। সব কিছু খতিয়ে দেখে প্রয়োজনে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

সূত্র: আনন্দবাজার

 

Similar Articles

Leave a Reply