You are here
নীড়পাতা > সাম্প্রতিক > ধূমপানে বিশ্বে দ্বিতীয় অবস্থানে ভারতীয় নারীরা

ধূমপানে বিশ্বে দ্বিতীয় অবস্থানে ভারতীয় নারীরা

নারীদের তামাক খাওয়ার প্রতিযোগিতায় মার্কিন মুলুকের পরই রয়েছে ভারতের নাম। অর্থাৎ ধূমপানে গোটা বিশ্বে দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছেন ভারতীয় নারীরা!

পরিসংখ্যান বলছে, নারীদের ধূমপানে প্রথম মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, দ্বিতীয় ভারত, তৃতীয় চীন ও চতুর্থ রাশিয়া। পঞ্চম স্থানে রয়েছে ব্রাজিল। একটা ছোট্ট পরিসংখ্যান দেখলেই বোঝা যাবে গত দশ-বারো বছরে ভারতে নারীদের ধূমপান আধিক্যের হার কী ভাবে বেড়েছে। বর্তমানে ভারতে নারী ধূমপায়ীর সংখ্যা ১২ দশমিক ১ মিলিয়নের বেশি।

ওয়ার্ল্ড হেলথ অরগানাইজেশনের তথ্য অনুযায়ী, ধূমপানের কারণে প্রত্যেক বছরই ৮ থেকে ৯ লাখ মানুষ প্রাণ হারাচ্ছেন। বিশেষত, ধূমপানের ফলে ক্যানসারে আক্রান্ত হয়েই মৃত্যু হয় বেশিরভাগ মানুষের। তার মধ্যে স্তন ক্যানসারের সংখ্যাটাই বেশি।

এর হাত থেকে বাঁচার একটাই উপায়। ধূমপান ত্যাগ করতে হবে। দরকার পড়লে চিকিৎসকের সাহায্য নিতে হবে। চিকিৎসকদের কথায়, কাউন্সিলিংই এ ব্যাপারে সঠিক চিকিৎসা।

ভারতে ১৯৮০ থেকে ২০১২ সালে নারী ধূমপায়ীর সংখ্যা তিপান্ন লাখ থেকে বেড়ে হয়েছে এক কোটি ২০ লাখ। ১৯৮০ সালে ভারতে ১০ জন পুরুষের মধ্যে ৩ জন (৩১ শতাংশ) এবং ২০ জন নারীর মধ্যে ১ জন (৬ শতাংশ) প্রতিদিন ধূমপান করতেন। বর্তমানে ১০ জনের পুরুষের মধ্যে ৪ জন (৪১ শতাংশ) এবং ১০ জন নারীর মধ্যে ১ জন (১০ শতাংশ) ধূমপান করেন। দেখা যাচ্ছে পুরুষের চেয়ে গত কয়েক দশকে নারীর ধূমপান আসক্তির হার অনেকটাই বেশি। আর এখানেই দানা বাঁধছে আশঙ্কা।

Similar Articles

Leave a Reply