You are here
নীড়পাতা > প্রতিবেদন > জেসমিন চৌধুরীর বই ‘নিষিদ্ধ দিনলিপি’

জেসমিন চৌধুরীর বই ‘নিষিদ্ধ দিনলিপি’

Your ads will be inserted here by

Easy Plugin for AdSense.

Please go to the plugin admin page to
Paste your ad code OR
Suppress this ad slot.

আহ‌মেদুর রশীদ টুটুল

জেসমিন চৌধুরীর একটি বই প্রকাশিত হয়েছে এবারের বইমেলায়। বইয়ের নাম ‘নিষিদ্ধ দিনলিপি’। বইমেলা থেকে স্থানিকভাবে অনেক দূরে আছি বলে বইটা দেখার সুযোগ হয়নি। তবে ধারণা করি এই বইয়ের অনেকগুলো লেখাই বিভিন্ন অনলাইন পোর্টাল ও ফেসবুকে শেয়ার দেয়ার কারণে আমার পড়া হয়েছে।

জেসমিন লিখেন অনেকদিন থেকেই। যদিও তেমন ভাবে নিজেকে প্রকাশিত করেননি কখনোই। তার বেশকিছু অসমাপ্ত লেখা পড়লেই বুঝতে পারা যায়, তার লেখার ধার ও ভার কত তীক্ষ্ণ ও গভীর। আমি অনেকদিন ধরে অপেক্ষা করছি জেসমিন এই তীক্ষ্ণ ও গভীর ধরনের লেখাগুলো উন্মোচিত করবেন পাঠকদের উদ্দেশ্যে।

জেসমিন অসম্ভব ভালো, যাকে বলে আপ টু দ্য স্ট্যান্ডার্ড অনুবাদ করেন বাংলা থেকে ইংরেজিতে। আমার মনে হয় ইংরেজিতে লিখলেও জেসমিন অনেক ভালো করতে পারবেন। আমি অবশ্য এটাও প্রত্যাশা করি, জেসমিন বাংলা ভাষার কিছু অনবদ্য সাহিত্যকে ইংরেজি ভাষার পাঠকের কাছে পৌঁছে দেয়ার উদ্যোগ নিতে পারবেন।

আমি বলছিলাম জেসমিন চৌধুরীর সদ্য প্রকাশিত বই ‘নিষিদ্ধ দিনলিপির কথা’। বাংলাদেশের চলমান নারী স্বাধীনতা, মুক্তচিন্তা বিষয়ক রেঁনেসাস আন্দোলনে এই বইয়েরও (মানে লেখাগুলোর) কিছু না কিছু অবদান দাগ এঁকে রাখবে অবশ্যই। এইসব লেখা প্রাথমিক ভাবে প্রকাশ করার সাহস দেখিয়েছেন যেসব পোর্টাল তারাও থাকবে ইতিহাসের অংশ হয়ে। একটা বই কী যে সাংঘাতিক ভাবে একজন লেখককে অনুপ্রাণিত করে, সেসবের আসলে কোনো বর্ণনা হয় না। প্রথম বই নিয়ে জেসমিনও নিশ্চয়ই দারুণ ভাবে আলোড়িত, অনুপ্রাণিত। বই হাতে থাকলে বিষয়বস্তু নিয়ে বলা যেত, বই সমালোচনার নির্ধারিত ফরমেটে কিছু মন্তব্য জুড়ে দেয়া যেত। কিন্তু এখানে তা সম্ভব হচ্ছে না। আমি প্রত্যাশা করবো জেসমিন তার অন্তর্নিহিত লেখনি শক্তির পরিপূর্ণ বিকাশ ঘটাতে পারবেন এই প্রথম বই প্রকাশের অনুভূতি, অভিজ্ঞতা ও অবগাহনের মাধ্যমে।

আহমেদুর রশীদ টুটুল এর ফেসবুক থেকে

Similar Articles

Leave a Reply