You are here
নীড়পাতা > প্রতিবেদন > ছড়া পরিষদ, সিলেট এর ৫০০তম পাক্ষিক ছড়া পাঠ অনুষ্ঠিত

ছড়া পরিষদ, সিলেট এর ৫০০তম পাক্ষিক ছড়া পাঠ অনুষ্ঠিত

Your ads will be inserted here by

Easy Plugin for AdSense.

Please go to the plugin admin page to
Paste your ad code OR
Suppress this ad slot.

ছড়া পরিষদ, সিলেট-এর ৩৩বছরে পদার্পণ ও ৫০০তম পাক্ষিক ছড়া পাঠের আসর বিশাল আয়োজনের মধ্য দিয়ে উদযাপন করা হয়েছে। বেলুন উড়িয়ে অনুষ্ঠানের উদ্বোধন করেন প্রখ্যাত শিশু সাহিত্যিক রফিকুল হক দাদুভাই।

গতকাল শুক্রবার সিলেট নগরীর জিন্দাবাজারস্থ একটি রেস্টুরেন্টে এই অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। অনুষ্ঠানকে তিনভাগে বিভক্ত করা হয়। অনুষ্ঠানের প্রথম পর্বে বাংলা সাহিত্যে ছড়া এবং ছড়া পরিষদ সিলেট শীর্ষক এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। এর আগে উদ্বোধনী বক্তব্য রাখেন প্রখ্যাত শিশু সাহিত্যিক রফিকুল হক দাদুভাই।

ছড়া পরিষদ, সিলেট-এর সাধারণ সম্পাদক জয়নাল আবেদীন জুয়েলের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ শিশু একাডেমীর পরিচালক আনজীর লিটন। ছড়া পরিষদ, সিলেট-এর সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুস সাদেক লিপনের স্বাগত বক্তব্যের মাধ্যমে শুরু হওয়া অনুষ্ঠানে  বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন বিশ্ববাংলা কবিতা পরিষদের প্রেসিডিয়াম সদস্য সৈয়দ আহমদ আলী আজিজ, প্রবীণ সাংবাদিক আ স ম মাখন, কবি-গবেষক মাহবুবুল আলম, সিলেট মহানগর আওয়ামীলীগের সাংস্কৃতিক সম্পাদক প্রিন্স সদরুজ্জামান চৌধুরী, দৈনিক যুগান্তরের বিভাগীয় সম্পাদক হিমেল চৌধুরী, ছড়াকার বদরুল আলম খান, ছড়াকেন্দ্র সিলেট-এর সভাপতি শাহাদাত বখত শাহেদ, ছড়াকার বদরুল আলম খান।

ছড়াকার মিনহাজ ফয়সলের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে বাংলাদেশ শিশু একাডেমীর পরিচালক আনজীর লিটন বলেন, ছড়া বাংলা সাহিত্যের অন্যতম শক্তিশালী মাধ্যম। ছড়ার মাধ্যমে সহজে সমাজের অনেক অবিচার-অনাচার এবং বিদ্রোহকে তুলে  সম্ভব। এরই ধারাবাহিতকতায় ছড়া পরিষদ সিলেট ছড়া সাহিত্যে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রেখে চলেছে।

অনুষ্ঠানের দ্বিতীয় পর্বে ছড়া পরিষদ সিলেট-এর প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি ছড়াকার শাহাদাত করিমের তিনটি ছড়াগ্রন্থ চিৎকার, খোঁচাখুঁচি এবং ইঙ্গিল বিঙ্গুল এর প্রকাশনা অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। এতে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশের প্রখ্যাত শিশু সাহিত্যিক আসলাম সানী, প্রধান আলোচক হিসেবে বক্তব্য রাখেন দৈনিক সিলেটের ডাকের সম্পাদক বিশিষ্ট গবেষক আব্দুল হামিদ মানিক। ছড়াকার জিল্লুর রহমান জয়ের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন ছড়া পরিষদ সিলেট-এর সহ সভাপতি ছড়াকার অজিত রায় ভজন, স্বাগত বক্তব্য রাখেন প্রতিভা প্রকাশ-এর স্বত্ত্বাধিকারী ছড়াকার মঈন মুরসালিন।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে শিশু সাহিত্যিক আসলাম সানী বলেন, ছড়াকার শাহাদাত করিম তার ছড়াগ্রন্থগুলোতে মানুষের প্রতি ভালোবাসা, সমাজের প্রতি দায়বোধ এবং সমকালীন বাস্তবতাকে অত্যন্ত সুন্দরভাবে ফুটিয়ে তুলেছেন। যেগুলো বিবেককে উজ্জ্বীবিত করে। প্রধান আলোচকের বক্তব্যে আব্দুল হামিদ মানিক বলেন, শাহাদাত করিমের ছড়ার কথার মধ্যে চমৎকারিত্ব বিদ্যমান। ছড়ার মাধ্যমে সমাজের জঞ্জাল দূর করতে অনন্য ভূমিকা পালন করবে।

এর পরে অনুষ্ঠানের সবচেয়ে আকর্ষণীয় পর্ব শুরু হয়। ৫০০তম পাক্ষিক ছড়া পাঠের আসর অনুষ্ঠিত হয়। এতে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশের প্রখ্যাত শিশু সাহিত্যিক ছড়াকার রফিকুল হক দাদুভাই। প্রধান অতিথির বক্তব্যে রফিকুল হক দাদুভাই বলেন, সৃজনশীলতা সবচেয়ে বড় গুণ। এই সৃজনশীলতাকে শাণিত করতে অধ্যয়নের বিকল্প নেই। বিষয়বস্তুর মধ্যে নতুনত্ব এবং পুরনো বিষয়কে নতুনভাবে উপস্থাপন করতে পারলেই ছড়া সাহিত্যে শক্তিশালী অবস্থান তৈরী করা সম্ভব।

অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন ছড়া পরিষদ, সিলেট-এর সভাপতি ছড়াকার মুজিবুর রহমান শাহীন। অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ছড়াকার পুলিন রায়, দৈনিক সিলেটের ডাকের সাহিত্য সম্পাদক এডভোকেট কবি আব্দুল মুকিত অপি।

অনুষ্ঠানে সিলেট তথা বাংলাদেশের বিভিন্ন অঞ্চলের ছড়াকারদের ছড়া পাঠের মাধ্যমে অনুষ্ঠান প্রাণবন্ত হয়। অনুষ্ঠানে স্বরচিত ছড়া পাঠ করেন কবি অধ্যাপক বাছিত ইবনে হাবীব, ছড়াকার আব্দুস সাদেক লিপন, ছড়াকার মিনহাজ ফয়সল, ছড়াকার কামরুল আলম, তোরাব আল হাবীব, পৃথ্বিশ চক্রবর্তী, কনুজ চক্রবর্তী বুলবুল, মাহবুব ইসলাম, মনজুর মোহাম্মদসহ দেশের বিভিন্ন অঞ্চলের ছড়াকারবৃন্দ।

Similar Articles

Leave a Reply