You are here
নীড়পাতা > সংবাদ > বাংলাদেশ > খাদিজার উপর হামলার প্রতিবাদে সহপাঠিদের বিক্ষোভ, কর্মসূচি ঘোষণা

খাদিজার উপর হামলার প্রতিবাদে সহপাঠিদের বিক্ষোভ, কর্মসূচি ঘোষণা

Your ads will be inserted here by

Easy Plugin for AdSense.

Please go to the plugin admin page to
Paste your ad code OR
Suppress this ad slot.

সিলেট সরকারি মহিলা কলেজের ছাত্রী খাদিজা বেগম নার্গিসের উপর হামলার প্রতিবাদে বিক্ষোভ সমাবেশ পালন করেছেন তাঁর সহপাঠিরা। হামলাকারীর ফাঁসিসহ তিনদফা দাবিতে দুইদিনের কর্মসূচি ঘোষণা করেছেন তারা।

মঙ্গলবার সকালে সিলেট সরকারি মহিলা কলেজের শিক্ষার্থীরা কলেজের সামনে বন্দর-জিন্দাবাজার সড়ক অবরোধ করে সমাবেশ করেছেন।

হামলাকারীর দৃষ্টান্তমূলক বিচারের দাবিতে আজ  থেকে ক্লাস-পরীক্ষা বর্জনের ঘোষণা দিয়েছেন তারা। পাশাপাশি আগামী দুইদিনের কর্মসূচি ঘোষণা দেন সহপাঠিরা। কর্মসূচির মধ্যে রয়েছে- মঙ্গলবার কালো ব্যাজ ধারণ করে জেলা প্রশাসনক বরাবরে স্মারকলিপি, বুধবার প্রতিবাদ সমাবেশ ও পরবর্তী কর্মসূচি ঘোষণা করবেন তারা।

তাদের দাবিগুলো হল- মামলাটি দ্রুত বিচার ট্রাইবুনালে স্থানান্তর, আসামী বদরুলের ফাঁসি নিশ্চিত করা এবং পরীক্ষার হল ও যাতায়তের সময় ছাত্রীদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করা।

এর আগে সকাল সাড়ে ১০টা থেকে কলেজের সামনে অবস্থান নিয়ে বিক্ষোভ শুরু করেন কলেজের ছাত্রীরা। ফাঁসি ফাঁসি শ্লোগানে মুখর হয়ে ওঠে পুরো চৌহাট্টা এলাকা। ফলে ওই সড়কে যান চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। দাবি আদায় না হওয়া পর্যন্ত তাদের আন্দোলন চলবে বলে জানিয়েছেন শিক্ষার্থীরা।

খাদিজার উপর বর্বর হামলার প্রতিবাদে টিলাগড় পয়েন্ট অবরোধ করে বিক্ষোভ করেন এমসি কলেজের সাধারণ শিক্ষার্থীরা। শিক্ষার্থীদের সাথে এতে যোগ দেন ছাত্রলীগ কর্মীরাও।

মঙ্গলবার সকাল ১১টায় কলেজ ক্যাম্পাস থেকে হামলাকারী বদরুলের বিচার দাবিতে বিক্ষোভ মিছিল নিয়ে টিলাগড় পয়েন্টে এসে সড়ক অবরোধ করেন তারা। এ সময় সিলেট-তামাবিল মহাসড়কে যান চলাচল বন্ধ হয়ে যায়।

সিলেট সরকারী মহিলা কলেজের স্নাতক দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্রী খাদিজা সোমবার পরীক্ষা দিতে এমসি কলেজ ক্যাম্পাসে গিয়েছিলেন। বিকেলে পরীক্ষা দিয়ে বেরিয়ে আসার সময় ধারালো অস্ত্র দিয়ে তাকে কুপিয়ে গুরুতর আহত করেন শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সহসম্পাদক ও অর্থনীতি বিভাগের শেষ বর্ষের ছাত্র বদরুল আলম।  পরে অন্য শিক্ষার্থীরা তাকে পিটুনি দিয়ে পুলিশে সোপর্দ করেন।

খাদিজা ও বদরুলকে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে আনা হয়। সোমবার রাতে খাদিজার অবস্থার অবনতি হলে তাকে ঢাকার স্কয়ার হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়। তাঁকে সেখানে লাইফ সাপোর্টে রাখা হয়েছে। চিকিৎসরা  জানিয়েছেন খাদিজার অবস্থা সংকটাপন্ন।

 

 

 

Similar Articles

Leave a Reply