You are here
নীড়পাতা > সংবাদ > বাংলাদেশ > এবার শাবিতেই হামলার শিকার এক ছাত্রী

এবার শাবিতেই হামলার শিকার এক ছাত্রী

সিলেট সরকারি মহিলা কলেজের ছাত্রী খাদিজা আক্তার নার্গিসকে কুপিয়ে নৃসংশভাবে আহত করার সপ্তাহ পেরুনোর আগেই শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের এক ছাত্রী হামলার শিকার হয়েছেন।

আজ শুক্রবার দুপুরে শাবি ক্যাম্পাসে এ ঘটনা ঘটে। হামলাকারী কাওছার আহমদ ও তার বোনকে পুলিশে সোপর্দ করা হয়েছে।

মারধরের শিকার ছাত্রী বিশ্ববিদ্যালয়ের নৃবিজ্ঞান বিভাগের ৪র্থ বর্ষে অধ্যয়নরত। নির্যাতনকারী কাওছার আহমদ চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক ছাত্র। তার বোনও একই বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী।

জানা গেছে, শুক্রবার দুপুরে কাওছার আহমদ তার বোনকে (ফাহমিদা আক্তার) নিয়ে শাবি শিক্ষার্থী ওই মেয়েটির সাথে দেখা করতে ক্যাম্পাসে আসেন। বেলা সাড়ে ১২টার দিকে শিক্ষকদের কোয়ার্টার এবং প্রথম ছাত্রী হলের মধ্যবর্তী গার্ডরুমের সামনে কথা কাটাকাটির একপর্যায়ে ভাইবোন মিলে ওই শিক্ষার্থীকে মারধর শুরু করে। এসময় শাবি’র শিক্ষক অধ্যাপক সামসুল আলম ও সাজেদুল করিম ঘটনাস্থল দিয়ে যাওয়ার সময় কাওছারকে থামানোর চেষ্টা করেন। এতে কাওছার ক্ষুব্ধ হয়ে শিক্ষকদের উপরও চড়াও হন। পরে সাধারণ শিক্ষার্থীরা জড়ো হয়ে কাওছারকে মারধর করেন।

খবর পেয়ে জালালাবাদ থানা পুলিশ ক্যাম্পাসে গিয়ে কাওছার ও তার বোনকে উদ্ধারের চেষ্টা চালায়। এসময় শিক্ষার্থীদের ক্ষোভের মুখে পড়ে পুলিশ। পরে শিক্ষার্থীদের শান্ত করে ভাই-বোনকে থানায় নিয়ে আসে পুলিশ।

মহানগর পুলিশের জালালাবাদ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ওসি আক্তার হোসেন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, কাওছারের সাথে ছাত্রীর প্রেমের সম্পর্ক ছিল। কিন্তু তার আচরণগত সমস্যার কারণে মেয়েটি সে সম্পর্ক ভেঙে দেয়। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে বোনকে নিয়ে হামলা চালায় ছেলেটি।

শাহজালাল বিশ্ববিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রক্টর অধ্যাপক ড. রাশেদ তালুকদার বলেন, ছাত্রীকে মারধরের ভিডিও ফুটেজ আছে। আমরা ছেলে ও তার বোনকে পুলিশের হাতে তুলে দিয়েছি। বিষয়টি এখন পুলিশ দেখবে বলে জানান তিনি।

Similar Articles

Leave a Reply