You are here
নীড়পাতা > সংবাদ > আন্তর্জাতিক > আইএসে যোগ দেওয়া বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত তরুণীর ব্রিটিশ নাগরিকত্ব থাকছে

আইএসে যোগ দেওয়া বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত তরুণীর ব্রিটিশ নাগরিকত্ব থাকছে

সন্ত্রাসী সংগঠন ইসলামিক স্টেট (আইএস) এর কার্যক্রমে উদ্বুদ্ধ হয়ে যুক্তরাজ্য থেকে সিরিয়ায় পালিয়ে যান বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত এক নারী। আইএসে যোগ দিয়ে এক আইএস যোদ্ধাকে বিয়ে করেন তিনি।

২৭ বছর বয়সী এ নারীর বাবা-মা বাংলাদেশি। তবে তার জন্ম হয় উত্তর লন্ডনের এনফিল্ডে। বর্তমানে তিনি তুরস্কে আটক থাকলেও তুরস্ক তাকে যুক্তরাজ্যে ফেরত পাঠাতে চায়। এ সময় তাকে যুক্তরাজ্যের নিরাপত্তার জন্য হুমকি বিবেচনা করে যুক্তরাজ্যের নাগরিকত্ব বাতিলের আবেদন করে ব্রিটিশ সরকার।

আদালতের পক্ষ থেকে তার নাগরিকত্ব বাতিল করার বিষয়টি নাকচ করে দেওয়া হয়েছে। আদালতের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, তার জন্ম যুক্তরাজ্যে। আর নাগরিকত্ব বাতিল করলে তিনি রাষ্ট্রহীন হয়ে পড়বেন। এ কারণে যুক্তরাজ্যের জন্য হুমকি হলেও তার নাগরিকত্ব বাতিল করা সম্ভব নয়।

আইএসে যোগ দিয়ে সিরিয়ায় এ নারী দুই সন্তানের জন্ম দেন।

এরপর আইএস বিভিন্ন চাপের মুখে ভূখণ্ড হারানো শুরু করলে তিনি তুরস্কে পালিয়ে যান। তুরস্কের আইনশৃঙ্খলা রক্ষা বাহিনী তাকে গত বছরের নভেম্বরে আটক করে। সে সময় তার সঙ্গে এক ও দুই বছর বয়সী দুই সন্তান ছিল। তুরস্কের গাজিয়ানটেপে তাকে আটক রাখা হয়।

ব্রিটিশ নাগরিকত্ব বাতিল করা না হলেও তার বিরুদ্ধে অন্যান্য অভিযোগে মামলা করা যেতে পারে বলে জানিয়েছেন আইনজীবীরা। আদালতের নথিপত্রে এ নারীর নাম প্রকাশ করা হয়নি।

সূত্র : ডেইলি মেইল, কালের কন্ঠ

 

 

 

Similar Articles

Leave a Reply